কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ বাংলাদেশীদের কোস্ট ফাউন্ডেশনের নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান

দেলোয়ার হোসাইন টিসু, উখিয়া::

বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় পরিবারের মাঝে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও) কোস্ট ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় ১২৬ পরিবারের মাঝে প্রতি পরিবারে ১০০০ টাকা করে এ সহায়তা দেয়া হয়। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১২৬ পরিবারের প্রায় সাত শতাধিক মানুষ নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।।

বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সকাল ১১:৩০টা থেকে বালুখালী কাসেমিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এই অর্থ সহায়তা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়।

উক্ত কার্যক্রম উদ্বোধন করেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) আমিমুল এহসান খান।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কোস্ট ফাউন্ডেশন এর সহকারী পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী, পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবছার চৌধুরী, পালংখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি এম এ মঞ্জুর, পালংখালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহাদাত হোসেন জুয়েল, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি আলী আহমদ, উখিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কমরুদ্দিন মুকুল, বালুখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবু সবুজ সেন,মহিলা ইউপি সদস্য পারভীন আক্তার মুন্নি প্রমুখ।

অর্থ প্রদান সহায়তার এক পর্যায়ে ভুক্তভোগীরা জানান অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয়ে ঘরবাড়ি পুড়ে আজ ৪ দিন যাবত অসহায়ত্বের জীবন যাপন করছি। এই প্রথম এনজিও সংস্থাদের মধ্যে কোস্ট ফাউন্ডেশন সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।

এছাড়াও সংবাদকর্মী, গ্রাম পুলিশ,কোস্ট ফাউন্ডেশনের র্মকর্তা মোঃ শাহিনুর ইসলাম, রেজাউল করিম, মোঃ ইউনুচ, জসীম উদ্দিন মোল্লা, শরিফুল ইসলাম ভুঁইয়া, সাহেদুল কবির মিনার, সাহেব আলী, আব্দুর রহমান, নুর মোহাম্মদ, নুর আহমদ, মুনসুর আলম, মিজানুর রহমান, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, সাফকাত আলম চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত ২২ মার্চ (সোমবার) দুপুর ২ ঘটিকা নাগাদ বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প ৮-ওয়েস্টে অনাকাঙ্ক্ষিত এক অগ্নি দুর্ঘটনার সৃষ্টি হয়,তা পরবর্তীতে ক্যাম্প ৯, ক্যাম্প ১০, ক্যাম্প ১১ সহ মোট চারটি ক্যাম্পের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে নারী শিশুসহ ১৫ জন রোহিঙ্গা মৃত্যুবরণ করেছে। ৯ হাজার ৬০০টি মত ঘর পুড়েছে এত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৪৫ হাজার রোহিঙ্গা। রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় ঘর পুড়েছে প্রায় দেড় শতাধিক। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকার সম্পদ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। কি কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত ভাবে জানা যায়নি।

উল্লেখ্য যে, ২০১৭ সালের ২৫ আগষ্ট থেকে মানবিক সহায়তা কর্মসুচি চালিয়ে আসছে কোস্ট ফাউন্ডেশন। রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে শিক্ষা, জীবিকা, আয়বর্ধনমূলক কাজে সহায়তা করছে সংস্থাটি।সর্বশেষ গত ২২ মার্চ বালুখালী ক্যাম্পে অগ্নি দুর্ঘটনার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ১২৬ টি স্থানীয় পরিবারের মাঝে নগদ এক হাজার টাকা করে অর্থ সহায়তা দিয়েছে। তাছাড়াও অগ্নিকাণ্ডের রাতে তাৎক্ষণিকভাবে শুকনো খাবার, বিশুদ্ধ পানি ও প্রয়োজনীয় সহায়তাও প্রদান করেছে কোস্ট ফাউন্ডেশন।

পাঠকের মতামত: