কক্সবাজার, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০

অবশেষে এলো ভারতীয় পেঁয়াজ

টানা পাঁচ দিন অপেক্ষার পর সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকছে ভারতীয় পেঁয়াজ। শনিবার দুপুর ১টা থেকে ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দর থেকে ভোমরা বন্দরে ঢুকতে শুরু করেছে পেঁয়াজের ট্রাক।

তবে যেসব পেঁয়াজের ট্রাক অনুমোদন পেয়েছে শুধুমাত্র সেই ট্রাকগুলোই দেশে প্রবেশ করতে পারবে বলে জানিয়েছেন সিঅ্যান্ডএফ নেতৃবৃন্দ।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর পূর্বঘোষণা ছাড়াই ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দেয়। এর ফলে ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে বাংলাদেশে আমদানিমুখী প্রায় ৩০০ ট্রাকভর্তি পেঁয়াজ আটকা পড়ে যায়। বাংলাদেশে ঢুকতে না পেরে আটকেপড়া ওইসব পেঁয়াজে পচন ধরে যায়। ইতোমধ্যে অনেক পেঁয়াজ পচে গেছে বলে ব্যবসায়ীরা জানান।

শনিবার থেকে আটকেপড়া ৩০০ পেঁয়াজের ট্রাক ভোমরা বন্দরে ঢুকতে শুরু করলে সংশ্লিষ্টরা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন। তারা বলেন ১২ দিন আগে লোড দেয়া পেঁয়াজ ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে এসে ঠাঁয় দাঁড়িয়ে ছিল পাঁচ দিনেরও বেশি সময়। ফলে অনেক পেঁয়াজে পচন ধরেছে।

ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দরা বলেন, করোনাকালীন প্রায় তিন মাস বন্দর বন্ধ থাকায় তারা ক্ষতির শিকার হয়েছেন। সরকারের রাজস্ব আয়ও কমে গেছে। এই ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে না উঠতেই হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ার ঘটনা ছিল মড়ার ওপর খাড়ার ঘার মতোই। ক্ষতি হলেও অবশেষে পাঁচ দিন দম বন্ধকর অবস্থার পর পেঁয়াজ আসতে শুরু করায় তারা স্বস্তিবোধ করছেন।

এদিকে, সাতক্ষীরার সুলতানপুর বড়বাজারে কিছুটা কমেছে পেঁয়াজের দাম। প্রতি কেজি দেশি পেয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩৫-৪৫ টাকায়।

পাঠকের মতামত: