কক্সবাজার, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

অসহায় ছাত্রের পাশে দাঁড়ালেন আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা সিরাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজারের উখিয়া পালংখালী ইউনিয়নের আব্দুল হামিদ, সে পঙ্গু এবং এইচএসসির গন্ডি পেরিয়ে ডিগ্রী প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন করেন। এরমধ্যেই ভর্তি জন্য উখিয়া কলেজে প্রথম মেধা তালিকায় এসেছে। কিন্তু আর্থিক সংকটের কারণে ভর্তির শেষ সময়েও কলেজে ভর্তি হতে পারছিলেন না হামিদ। বিষয়টি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী সিরাজুল মুস্তাফাকে অবগত করেন। কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সিরাজুল মুস্তাফা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে উখিয়া কলেজ গর্ভনিং বডির সভাপতি ও উখিয়া টেকনাফের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি কে হামিদের অর্থিক সংকটের কথা তুলে ধরেন। পরে আর্থিক সংকট বিবেচনা করে পঙ্গু ও অসহায় ছাত্রকে ফ্রীতে পড়ার সুযোগ করে দেন আব্দুর রহমান বদি।

বুধবার সকালে আব্দুল হামিদ উখিয়া কলেজে ডিগ্রী প্রথম বর্ষে ভর্তি হন। কলেজ কতৃপক্ষ তার ৩ বছরের পড়ালেখার সকল ফি মওকুফ করেছেন বললেই আবেগ আপ্লূত হয়ে ভেঙ্গে পড়েন আব্দুল হামিম এবং কৃতজ্ঞতা জানান।

আব্দুল হামিদ বলেন, আর্থিক সংকটের কারণে হয়তো আর পড়ালেখা করতে পারতাম না। বিশেষ করে আব্দুর রহমান বদি ও ছাত্রলীগ পাশে না দাড়ালে সম্ভব হতো না। আমার দেখা ছাত্রলীগ নেতা সিরাজুল মুস্তাফা কলেজের অসহায় ছাত্রদের পাশে থাকেন। এই রকম ছাত্রনেতাদেই আগামীর কলেজ ছাত্রলীগে দরকার।

সম্প্রতি নিজেকে কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থীতা ঘোষণার পর আলোচনায় আসেন উখিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সদস্য সিরাজুল মুস্তাফা।

সিরাজুল মুস্তাফা জানান, ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের মানুষের প্রয়োজনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা করেন। শিক্ষা-শান্তি-প্রগতি ছাত্রলীগের মূলনীতি এ শ্লোগানে ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠ লগ্ন থেকেই শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করছে। অসহায় ও পঙ্গু ছাত্রকে সহযোগী করতে পেরে নিজেও বেশ আনন্দিত। বিশেষ করে আমাকে উখিয়া টেকনাফের সাবেক সংসদ আবদুর রহমান বদি, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান, উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী সহযোগিতা করেছেন। তাদের প্রতি আমার রইল শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা।

এসময় সার্বিক সহযোগী করেছেন উখিয়া কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইসহাক মাহমুদ ও কলেজ ছাত্রলীগের আরেক সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী ত্যাগী ছাত্রনেতা মো. ওসমান। ওসমান বলেন, ছাত্রলীগ বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া সংগঠন। ছাত্রলীগ অসহায়-নির্যাতিত ছাত্রদের সংগঠন, ছাত্রলীগ মেধাবী ছাত্রদের সংগঠক, ছাত্রলীগ সকল ছাত্রদের সংগঠন বিধায় ছাত্রদের যে কোনো সমস্যা হলেই সেসব সমস্যা সমাধানে সবার আগে থাকে ছাত্রলীগ। কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনানের নির্দেশনায় উখিয়া কলেজে পড়তে আসা দরিদ্র, গরীব, অসহায়, অসচ্ছল ও মেধাবি ছাত্র/ছাত্রীদের সহযোগিতা করার চেষ্টা করি। সিরাজুল মুস্তাফা যেটিও করেছে সেটি প্রশংসা দাবিদার।

এদিকে ঝিমিয়ে পড়া কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সিরাজুল মুস্তাফা এবং মো. ওসমান সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী হওয়ার পর থেকে আবারও চাঙ্গা হয়ে ওঠছে কলেজ ছাত্রলীগের রাজনীতি।

পাঠকের মতামত: