কক্সবাজার, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

আহমদ শফী ‘হত্যা মামলায়’ হেফাজত নেতা আসাদ গ্রেপ্তার

হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা আমীর শাহ আহমদ শফীকে নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যা করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আসাদুল্লাহ ওরফে আসাদ (৩০) নামের এক হেফাজত নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফটিকা এলাকা থেকে গত বুধবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। র‌্যাব জানিয়েছে, আসাদ হেফাজতের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। এছাড়াও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনের প্রতিবাদে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনেও চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে সহিংসতার সঙ্গে জড়িত ছিলেন।শফী হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে হাটহাজারী থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় আরও তিনটি মামলা আছে।

চট্টগ্রাম রাবের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. রাকিবুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা আমীর শাহ আহমদ শফী মারা যান। তিনি হাটহাজারীর আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদরাসার মহাপরিচালক ছিলেন। মৃত্যুর আগে ওই মাদরাসায় তিনদিন ধরে তাকে অবরুদ্ধ করে ছাত্র বিক্ষোভ হয়। এর মধ্যে শফী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং একপর্যায়ে শারীরিক অবস্থার গুরুতর অবনতি হয়। হেলিকপ্টারে ঢাকায় হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর শফীর পরিবার এবং হেফাজতে ইসলামের মধ্যে তার অনুসারীরা শফীকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে আহমদ শফীর শ্যালক মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন বাদী হয়ে চট্টগ্রামের আদালতে একটি মামলা করেন। মামলায় মামুনুল হকসহ ৩৬ জনকে আসামি করা হয়। আদালত পিবিআই’কে মামলা তদন্তের দায়িত্ব দেন।

পাঠকের মতামত: