কক্সবাজার, বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

উখিয়ার ৫ ইউনিয়নে পুলিশের ৯ টি বিট হচ্ছে!

মিয়ানমার থেকে অনুপ্রবেশ করে এসে ক্যাম্প গুলোতে বিপুল পরিমাণ রোহিঙ্গা অবস্থানের কারনে উখিয়ার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে উখিয়া উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নে পুলিশের ৯ টি বিট করা হচ্ছে বলে জানালেন উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম মজুমদার।

বুধবার উখিয়া উপজেলা সন্মেলন কক্ষে অনুষ্টিত উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় তিনি বলেন, উখিয়ার রাজাপালং ইউনিয়নে ২ টি,রত্নাপালং ইউনিয়নে ২ টি,পালংখালী ইউনিয়নে ২ টি, হলদিয়া পালং ইউনিয়নে ২ ও জালিয়াপালং ইউনিয়নে ১ টি সহ ৫ ইউনিয়নে সর্বমোট ৯ টি বিট করা হচ্ছে। প্রত্যকটা বিটের দ্বায়িত্বে থাকবে একজন পুলিশ অফিসার। এক্ষেত্রে গ্রামের বিভিন্ন লোক যারা থানা পর্যন্ত আসার সুযোগ পায়না তাদের জন্য পুলিশের এ বিট বিশেষ ভুমিকা রাখবে । ইদানিং উখিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মাদক ব্যবসা, ইভটিজিং, আইন বিরোধী কর্মকান্ড বেড়ে যাচ্ছে। এসব ব্যাপারে চেয়ারম্যান, মেম্বারদের সাথে আমাদের বিট অফিসাররা যোগাযোগ করবে। চেয়ারম্যান, মেম্বাররা অপরাধ প্রবন এলাকা নির্ধারন করে সেখানে আপনারা একটি জায়গা নির্ধারন করে দেবেন। সেখানেই বিট অফিসার সহ অন্যন্যরা বসবে।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিতত্বে অনুষ্টিত আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় অন্যন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উখিয়া স্বাস্হ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আব্দুল মান্নান, উখিয়া সহকারী কমিশনার ভূমি আমিমুল এহসান খান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নেছা বেবী, উখিয়া প্রেসক্লাব সভাপতি সরওয়ার আলম শাহীন,পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী,জালিয়াপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন চৌধুরী, রাজাপালং ইউনিয়নের সদস্য মৌলভী বখতিয়ার আহমদ। এ সময় সরকারী বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত: