কক্সবাজার, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রতিকার পেতে পরিবেশ অধিদপ্তরে অভিযোগ

উখিয়া ফরেস্ট রোডে পাহাড় কেটে ঘর নির্মাণ, বনবিভাগ দেখেও দেখে না

এইচ.কে রফিক উদ্দিন::

উখিয়া ফরেস্ট রোডে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের পাহাড় পাহাড় কেটে বাড়ি-ঘর নির্মাণ করে যাচ্ছে বলে ৫৮ জনের গণস্বাক্ষরে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

কর্তনকৃত পাহাড়ের মাটি বৃষ্টির পানির সাথে চলাচলের রাস্তায় এসে ড্রেইন ভরাটসহ বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা তৈরি করাতে স্হানীয়রা নিরুপায় হয়ে ০৪-০৮-২১ ইং তারিখে পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার উপ-পরিচালক বরাবর অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়,জাফর প্রকাশ (ইয়াবা জাফর) মাদক ব্যবসার আর্শিবাদে কোটিপতি বনে যাওয়ায় কাউকে তোয়াক্কা না পাহাড় কাটা ও ঘর নির্মাণ অব্যাহত রেখেছে।কেউ প্রতিবাদ করলে শায়েস্তা করা ও দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবি, বিট অফিসার বড় অংকের টাকা খেয়ে এই ঘর নির্মাণ করে যাচ্ছে। বনবিভাগের কর্মকর্তারা রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করে কিন্তু তারা দেখেও দেখে না।

মানবাধিকার সংস্হা হিউম্যান রাইটস সোসাইটি কক্সবাজার জেলার তদন্ত কর্মকর্তা মৌলানা জাফর আলম বলেন, ইয়াবা জাফর ইয়াবা ব্যবসা করে গাড়ি,বাড়ি ও অঢেল সম্পদের মালিক বনাতে প্রশাসনকে তোয়াক্কা না করে দিব্যি তার অনৈতিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে।তাই তাকে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এবিষয়ে উখিয়া বন কর্মকর্তা গাজী শফিউল ইসলাম জানান, সরকারি বনভূমি জবর দখলকারী ও পাহাড় কর্তন কারিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে।

পাঠকের মতামত: