কক্সবাজার, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

উখিয়ায় ২০ হাজার ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় ৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা!

উখিয়ায় এপিবিএন পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার ইয়াবাসহ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বশির ( প্রকাশ গুরু বশির) সহ ৩ জন ইয়াবা কারবারির বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে।
যার মামলা নং ১৪ তারিখ ৬/২/২০২১।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ গাজী সালাহউদ্দিন (তদন্ত) জানান, এপিবিএন পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর মোজাহেরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলায় আসামি করা হয় রাজাপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ ফলিয়া পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আলীর পুত্র ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ বশির ও একই এলাকার আমীর হোসেনের পুত্র মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও ডেইল পাড়া গ্রামের ছরুত আলমের পুত্র মোহাম্মদ হানিফ।

থানায় দায়েরকৃত মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত গত শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মধু ছাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এপিবিএন পুলিশ ফাঁড়ির সাব ইন্সপেক্টর মোজাহেরুল ইসলাম নেতৃত্বে অন্যান্য সদস্যরা অভিযান ও তল্লাশি চালিয়ে সিএনজি ( কক্সবাজার থ ১১ -৭৮৭৫) গাড়িসহ ২০ হাজার ইয়াবা জব্দ করে। এ সময় ২ জন ইয়াবা কারবারি পালিয়ে গেলেও সিএনজি চালক ইব্রাহিমকে আটক করা হয়।

মাদক কারবারিরা মধুরছড়া – লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প সড়ক দিয়ে সিএনজি যোগে ইয়াবা পাচার করছিল।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী এপিবিএন পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর মুজাহিরুল ইসলাম জানান , আটক সিএনজি চালক ইব্রাহিমের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তির নাম বশির ও হানিফ বলে সাক্ষ্য দেন। জব্দকৃত ইয়াবা পালিয়ে যাওয়া মাদক কারবারিরা সিএনজি যোগে পাচার করছিল।

এ ব্যাপারে ৩৫ (১) এর ১০ (গ ) ৪১ ধারায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রুজু করেন এপিবিএন পুলিশ।

এদিকে উখিয়া থানার পুলিশ পলাতক আসামী ইয়াবা কারবারি বশির ও হানিফকে গ্রেপ্তার করতে সম্ভাব্য এলাকায় অভিযান চালিয়েছে বলে জানা গেছে

পাঠকের মতামত: