কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১

কক্সবাজারের ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউপি’তে ভোটগ্রহণ চলছে

কক্সবাজারের চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভা এবং চার উপজেলার ১৪ ইউনিয়ন পরিষদে ১ম ধাপের নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে।
কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিসার এসএম শাহাদাত হোসেন বিষয়টি জানিয়েছেন।

কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিসের দেওয়া তথ্য মতে, এ জেলার মহেশখালী পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ১৯ হাজার ৪৮৪ এবং চকরিয়া পৌরসভায় ৪৮ হাজার ৭২৪ জন। মহেশখালীতে ১০টি ভোটকেন্দ্রে বুথ সংখ্যা ৫৯টি এবং চকরিয়া পৌরসভায় ১৮টি ভোটকেন্দ্রে ১৩৯টি বুথ রয়েছে। ২টি পৌরসভায় মেয়র পদে ৮ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত নারী সদস্য ২৫ এবং পুরুষ কাউন্সিলর পদে ৭৬ জন প্রার্থী রয়েছে।

এছাড়া, জেলার পেকুয়া, কুতুবদিয়া, মহেশখালী ও টেকনাফ এই চার উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ১১ হাজার ২৩৪ জন। সেখানে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৫৯ হাজার ৯৯৫ এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ৫১ হাজার ১২ জন। চার উপজেলার ১৪০টি ভোট কেন্দ্রে ৭৮০টি স্থায়ী এবং ১১৩টি অস্থায়ী ভোটকক্ষ নির্ধারণ করা হয়েছে।

১৪ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯২ জন প্রার্থী রয়েছেন। সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৯৯ এবং পুরুষ মেম্বার পদপ্রার্থী হিসেবে ৭৭৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এবং ২ পৌরসভা ও ১৪ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ৩৩ জন। এদিকে, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রতি পৌরসভার জন্য ৪ প্লাটুন করে ৮ প্লাটুন বিজিবি এবং ১৪ ইউনিয়নে জন্য ২৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও র‍্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। উপকুলীয় এলাকা সমুহের জন্য কোস্টগার্ড মোতায়েন করা হয়েছে। পাশাপাশি নির্বাচনী এলাকায় নির্বাহী ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট সূত্র।

জেলা নির্বাচন অফিসার জানান, নির্বাচনকে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে প্রশাসনের সর্বোচ্চ প্রস্তুতি রয়েছে। কিছু এলাকায় বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটলেও তা নির্বাচনে প্রভাব ফেলবে না। ভোটের জন্য তিনস্তরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। চকরিয়া পৌরসভার জন্য আলাদা ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতি ভোটকেন্দ্রে পৃথক তিনটি টিম কাজ করবে। কাউকে কোনো ধরনের প্রভাব বিস্তার করতে দেওয়া হবে না। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট গ্রহণে সকল প্রস্তুতি রয়েছে।

পাঠকের মতামত: