কক্সবাজার, রোববার, ৩ মার্চ ২০২৪

কক্সবাজারে ঘুরতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন কলেজছাত্র

ঈদের পরের দিন হিমেল, পাপ্পু ও আরমান তিন বন্ধু কক্সবাজার বেড়াতে যান। সৈকতের জোয়ারের পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন গাজীপুরের কালিয়াকৈরের কলেজছাত্র হিমেল হোসেন। নিখোঁজের তিন দিন পর বৃহস্পতিবার বিকেলে বাঁকখালী এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। শুক্রবার সকালে মরদেহ কালিয়াকৈরের মাঝুখানে আনা হয়।

নিহত হিমেল হোসেন (২২) উপজেলার মাঝুখান এলাকার আক্কাস হোসেনের ছেলে। তিনি স্থানীয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র ছিলেন।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঈদের পর দিন হিমেল, পাপ্পু ও আরমান তিন বন্ধু কক্সবাজার বেড়াতে যান। মঙ্গলবার বিকেলে কক্সবাজারের লাবনী বিচে গোসল করতে নামেন হিমেল ও পাপ্পু। গোসলের একপর্যায়ে জোয়ারের পানিতে ভেসে যান হিমেল ও পাপ্পু মিয়া। এ সময় তীরে দাঁড়িয়ে থাকা আরেক বন্ধু আরমান হোসেন বিষয়টি স্থানীয় টুরিস্ট পুলিশকে জানান। টুরিস্ট পুলিশ ও কোস্ট গার্ড পাপ্পুকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে। তবে হিমেল নিখোঁজ ছিলেন। তিন দিন পর বৃহস্পতিবার বিকেলে কক্সবাজারের বাঁকখালী এলাকা থেকে হিমেলের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষে শুক্রবার সকালে মরদেহ কালিয়াকৈরের মাঝুখানে পৌঁছায়। পরে সকাল ১০টার দিকে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

নিহত হিমেল হোসেনের মামা জাবেদ হোসেন জানান, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে হিমেলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। শুক্রবার মরদেহ বাড়িতে আনা হয়।

পাঠকের মতামত: