কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১

কক্সবাজারে বালাই নেই স্বাস্থ্যবিধির

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ উপেক্ষা কোরে, সাগরের ঢেউ উপভোগ করছেন, ভ্রমণ পিপাসুরা। তবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সৈকতে যেতে অনীহা বেশিরভাগ পর্যটকের। কেউ আবার যেখানে-সেখানে ফেলছেন, মাস্ক। ট্যুরিস্ট পুলিশ বলছে, স্বাস্থ্যবিধি মানাতে বাধ্য করলেও; খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছেন না পর্যটকরা।

দৃষ্টির সীমা ছাড়ানো সৈকত আর উছলে পড়া প্রাকৃতিক ঐশ্বর্য। যেখানে গর্জন তোলা ঢেউ হাতছানি দেয় সৌন্দর্য পিপাসুদের। করোনায় ঘরবন্দী জীবন থেকে বেরিয়ে পর্যটকদের গন্তব্য এখন সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে।

প্রশ্ন উঠেছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউকে উপেক্ষা করে সমুদ্রের ঢেউ উপভোগকারীরা কতটা সচেতন?

করোনার ভ্যাকসিনের বিকল্প হিসেবে গুরুত্ব পাচ্ছে মাস্ক। কেন জানি তা ব্যবহারে অনীহা। আবার যারা ব্যবহার করছেন, অনেকেই তা ফেলে যাচ্ছেন সৈকতে। ফলে স্বাস্থ্যঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।

টুরিস্ট পুলিশ কর্তৃপক্ষ বলছে, মাস্ক ছাড়া সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের ঢুকতে বাধা দিলে, বিরক্ত প্রকাশ করেন তারা।

করোনায় গত মার্চ থেকে আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ ছিলো কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকতের পর্যটকদের প্রবেশ। এখন পুরোদমে আনাগোনা বাড়লেও খুব একটা গুরুত্ব পাচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি।

পাঠকের মতামত: