কক্সবাজার, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

কক্সবাজারে হােটেল-মোটেল খোলার প্রস্তুতি

আগামী ১৯শে আগস্ট থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতসহ পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র খুলছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৫০ শতাংশ কক্ষ ভাড়া দিতে পারবে হোটেল মোটেল মালিকরা। সরকারি নির্দেশনা পাওয়ার পর প্রতিষ্ঠান চালুর জোর প্রস্তুতি চলছে। এদিকে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই কক্সবাজারে ভিড় করেছে হাজারো পর্যটক।

দেশের অন্যতম পর্যটনকেন্দ্র কক্সবাজারে সারা বছরই থাকে পর্যটকদের আনাগোনা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর থেকে অন্যান্য পর্যটনস্থানের মতো কক্সবাজারেও ব্যবসায় মন্দাভাব শুরু হয়। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারি নির্দেশে গত পহেলা এপ্রিল বন্ধ হয় কক্সবাজারের হোটেল-মোটেল, রিসোর্ট ও গেস্টহাউস। সেই সাথে সৈকতসহ সব পর্যটনকেন্দ্র ভ্রমণে আসে নিষেধাজ্ঞা। তবে আগামী ১৯শে আগস্ট থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার শর্তে পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্রগুলো খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এরপর থেকেই দীর্ঘদিন বন্ধ পড়ে থাকা হোটেল, মোটেল ও গেস্টহাউজসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ধোয়ামোছা ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করাসহ নানা প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের আগেই কক্সবাজারে ভিড় করেছেন পর্যটকরা।

কক্সবাজার হোটেল-মোটেল-গেস্টহাউজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম সিকদার জানালেন, পর্যটন খাতকে ঝুঁকিমুক্ত করতে হোটেল, মোটেল, গেস্টহাউজে গিয়ে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে।

পর্যটন শিল্পের সাথে জড়িত সকলকে সরকারের দেয়া শর্ত মানতে নির্দেশনা দেয়ার কথা জানিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো: আবু সুফিয়ান।

১৯ তারিখের পর পর্যটকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্রমণের জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে বলে জানান পর্যটন শিল্প সংশ্লিষ্টরা।

পাঠকের মতামত: