কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২

কক্সবাজারে হোটেল পাঁচতারা ও আহসান বোর্ডিংয়ে পুলিশের অভিযান, আটক-২১

কক্সবাজার শহরের লালদীঘিপাড়ের হোটেল পাঁচতারা ও আহসান বোর্ডিংয়ে পুলিশের অভিযান চালিয়ে ২১ খদ্দের-পতিতাকে আটক করেছে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ।

এসময় ইয়াবা সেবনের সরঞ্জাম ও যৌন উত্তেজক মেডিসিন এবং ২ বস্তা কনডম উদ্ধার করা হয়।

সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকাল ৫ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়।

স্থানীয়রা জানান, লালদিঘীর পাড় এলাকার মৃত সৈয়দ নুরের ছেলে
রমজান আলী সিকদারের মালিকানাধীন হোটেল পাঁচতারা ও মৃত আহসান উল্লাহর ছেলে শহর আলীর মালিকানাধীন আহসান বোর্ডিং এ প্রতিনিয়ত অসামাজিক কার্যকলাপ চলে। অফিস- আদালতে আসা সাধারণ মানুষ এবিষয়ে অস্বস্তিবোধ করে এবং পরিবার-পরিজন নিয়ে চলাফেরায়ও পড়তে হয় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে। সাধারণ মানুষের অভিযোগের ভিত্তিতে থানা পুলিশ এ অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (অপারেশন) ইন্সপেক্টর সেলিম উদ্দিন জানান, শহরের লালদীঘি পাড়ের হোটেলগুলোতে অসামাজিক কার্যকলাপে চলছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান পরিচালিত হয়। হোটেল পাঁচতারা ও আহসান বোর্ডিংয়ে অভিযান চালিয়ে ১৪ খদ্দের ও ৭ পতিতা আটক করা হয়েছে। পতিতাবৃত্তির দায়ে এসব হোটেলের মালিকদেরও আইনের আওতায় আনা হবে এবং এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলে জানান তিনি।

পাঠকের মতামত: