কক্সবাজার, বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০

কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের সাথে নবাগত ওসি’র সৌজন্য সাক্ষাৎ

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি::

কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা করেন কুতুবদিয়া থানায় সদ্য যোগদানকৃত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ,কে,এম শফিকুল আলম চৌধুরী।

শুক্রবার (৩ জুলাই) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে ওসির কক্ষে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

করোনা পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরে
আয়োজিত সৌজন্যে সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস,কে,লিটন কুতুবী, সাধারণ সম্পাদক মো.শাহাদত হোছাইন, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য জয়নাল আবেদীন।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাসেল খাঁন জয়, আব্বাস উদ্দিন সিদ্দিকী, মহি উদ্দিন কুতুবী, নাছির উদ্দিন, নেছার আহম্মদ কুতুবী
ও আব্দুল করিম প্রমুখ।

এছাড়াও, কুতুবদিয়া থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন এবং সেকেন্ড অফিসার মোসলেম উদ্দিন বাবলুও এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় কুতুবদিয়ার আইন-শৃঙ্খলা ও সার্বিক বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা করেন। কুতুবদিয়ার মানুষকে সুখে-শান্তিতে রাখতে সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ারও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। জিডি ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্সে কোন ধরনের লেনদেন না করতে সেবা প্রার্থীদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। জিডি ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্সে যদি কোন অফিসার টাকা নেয়, তাহলে সরাসরি ওসিকে জানানোর অনুরোধ জানান তিনি।

ওসি এ,কে,এম শফিকুল আলম চৌধুরী
আরো বলেন, ২০১৫ ইংরেজিতে ইন্সপেক্টর হিসেবে পুলিশে যোগদান করে মহেশখালী থানা ও চকরিয়া থানাতে দায়িত্ব পালন করি। একজন পুলিশ অফিসার হিসেবে জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাবো। পুলিশের ব্যাপারে মানুষের যে ধারণা তৈরি হয়েছে তা পাল্টে দিতে কাজ করতে চাই। পাশাপাশি কুতুবদিয়া থানাকে দালাল মুক্ত রাখতে কাজ করে যাবো। সাংবাদিকদের কাছে সঠিক সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। কুতুবদিয়া থেকে মাদক কারবারী, ডাকাত, জলদস্যু, সন্ত্রাসমুক্ত করতে কাজ করার
দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তিনি। তাদেরকে
স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে অনুরোধ জানান নতুবা ভয়াবহ পরিণতি অপেক্ষা করছে বলে কঠোর হুসিয়ারী দেন তিনি।

পাঠকের মতামত: