কক্সবাজার, শনিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২০

কুতুবদিয়া চ্যানেলে ১৭ জেলে নিখোঁজ, ৩ জনের লাশ উদ্ধার

বঙ্গোপসাগরের কুতুবদিয়া এলাকায় একটি ফিশিং বোট আরেকটি বোটের ধাক্কায় ডুবে গেলে এতে বাঁশখালীর ১৭ জন জেলে নিখোঁজ রয়েছেন। ইতোমধ্যে ৩ জেলের লাশ উদ্ধার এবং ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার (৪ অক্টোবর) সকালে ৯নং শীলকূপ ইউনিয়নের বাংলাবাজার ঘাট থেকে গভীর সাগরে যায় বাঁশখালীর ছগির মাঝির একটি ফিশিং বোট। সাগরে মাছ মারতে গিয়ে অন্য জেলেদের সাথে বিরোধ বাঁধে বাঁশখালীর জেলেদের।

এতে বড় একটি ফিশিংবোট বাঁশখালী ছগির মাঝির বোটকে ধাক্কা দিলে সেটি সাগরে ডুবে যায়।

সাগরে নিখোঁজ হওয়া জেলে মহিউদ্দিনের ভাই মোহাম্মদ শহীদ উল্লাহ জানান, সকালে সাগরে মাছ ধরতে গেলে অন্য জেলের সাথে বাঁশখালীর জেলেদের বিরোধ ঘটে। এতে বড় একটি ফিশিংবোট ছগির মাঝির বোটকে ধাক্কা দিলে মাঝি-মাল্লাসহ বোটটি সাগরে ডুবে যায়। এসময় ওই বোটে ৩০ থেকে ৩৫ জন জেলে ছিল।

এর মধ্যে ৩ জনের লাশ উদ্ধার করে বাঁশখালী উপকূলে আনা হয়। আশপাশের বোটের লোকজন আরও ১০ জনকে জীবিত উদ্ধার করেন। এছাড়া আরও ১৭ জন জেলে নিখোঁজ হন। তাদের উদ্ধার করতে প্রশাসনের পাশাপাশি বাঁশখালী থেকে আরও ১০টি বোট চেষ্টা চালাচ্ছে।

বাঁশখালীর নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোমেনা আক্তার বলেন, সকালে মাছ মারতে গিয়ে সাগরে একটি বোট ডুবির ঘটনা ঘটেছে বলে অবগত হয়েছি। সেখানে প্রশাসনের লোকজন পাঠানো হয়েছে। তারা ফিরে না আসা পর্যন্ত কতজন উদ্ধার ও কতজন নিখোঁজ রয়েছেন তা সঠিক করে বলা যাচ্ছে না।

পাঠকের মতামত: