কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ৩০ জুন ২০২০

গণস্বাস্থ্যের কিট কেন গ্রহণ করেনি সরকার, জানালো ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর

বিশ্বের কোনো দেশেই করোনাভাইরাস পরীক্ষায় উদ্ভাবিত র‌্যাপিড কিট অনুমোদন দেয়নি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এ কারণেই গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত কিট গ্রহণ করেনি সরকার।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে স্বাস্থ্য মিডিয়া সেল আয়োজিত কোভিড-১৯ পরীক্ষার কিট সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান।

তিনি বলেন, উনি বিভিন্ন সময়ে সংবাদ সম্মেলন করে স্বাস্থ্য অধিদফতর, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং আমাদের ওষুধ প্রশাসনকে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছেন। আমি অতি বিনয়ের সঙ্গে বলতে চাই, আমাদের দেশের এই মুহূর্তে প্রত্যেক মানুষের সহযোগিতা খুব দরকার। সবার তাদেরও দরকার। গণস্বাস্থ্যের সহযোগিতা আমাদের দরকার। সবাই মিলে আমাদের সমস্যা সমাধান করতে হবে।

ঘুষের বিষয়টি তুলে ড. জাফরউল্লাহ অনৈতিক কথা বলেছেন বলেও দাবি করেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি।

Loading...

তিনি বলেন, কীটের উদ্ভাবক দাবি করেছেন ঔষধ প্রশাসন কখনও ঘুষের বিষয়টি তুলেননি অথচ জাফরউল্লাহ ঘুষের কথা বলেছেন।

এসময় বলা হয়, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সক্ষমতা নেই এটা বলছে না সরকার। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নিয়ম মেনে কাজ করে তারা সফল হলে সরকার তাদের স্বাগত জানাবে বলেও জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, শনিবার করোনাভাইরাস পরীক্ষার কিট ‘জিআর কোভিড-১৯ ডট ব্লট’ হস্তান্তর উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন ডাকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। ওই সম্মেলনে সরকারের কোনো প্রতিনিধি যায়নি। এই কিট গ্রহণ করেনি ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর।

ওই অনুষ্ঠানে না যাওয়া প্রসঙ্গে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন না মেনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে গণস্বাস্থ্য। এ কারণে ওই অনুষ্ঠানে যাওয়া হয়নি।

এসময় তিনি এও বলেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রকে করোনাভাইরাস পরীক্ষার টেস্ট কিট নিয়ে আমরা আগেও সহযোগিতা করেছি এখনও সহযোগিতা করতে প্রস্তুত।সূত্র: আমার সংবাদ

পাঠকের মতামত: