কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১

চকরিয়ায় ছেলের পর বাবাও করোনা আক্রান্ত

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ছেলের পর বাবাও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মো: আব্দুল মতলব (৬০) নামের করোনা ভাইরাস আক্রান্ত আরেক রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। তিনি সদ্য করোনা আক্রান্ত গার্মেন্টস কর্মী সাইদুল ইসলামের বাবা। আক্রান্ত আব্দুল মতলব উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড হাঁসেরদিঘীস্থ কাছারিপাড়া এলাকার মৃত সৈয়দ আহমদের পুত্র।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে আক্রান্ত বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মোহাম্মদ শাহবাজ বলেন, ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের হাঁসেরদিঘীস্থ কাছারিপাড়া এলাকায় ইতোমধ্যে সাইদুল ইসলাম নামের এক গার্মেন্টসকর্মী করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোগে আক্রান্ত হয়। মঙ্গলবার ওই পরিবারের ৫ সদস্যের করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এদের মধ্যে আক্রান্ত যুবকের বাবারও পজিটিভ রেজাল্ট আসে। বর্তমানে তারা বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের অবস্থা দেখে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

নতুন আক্রান্ত রোগী প্রসঙ্গে জানতে চাইলে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ বলেন, ওই এলাকায় সাইদুল ইসলাম নামের এক যুবক আক্রান্ত হওয়ার পরপরই পরিবারের বাড়িটি ইতোপূর্বে লকডাউন করা হয়েছে। তাই নতুন করে আর লকডাউন করার প্রয়োজন নেই। তাদের ব্যাপারে দেখাশুনা ও তদারকির জন্য স্থানীয় ফাঁসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আক্রান্ত ওই পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আক্রান্ত পরিবারের বাহিরে একজন চৌকিদার নিয়োজিত করা হয়েছে। যাতে ওই পরিবারের কেউ যেন বাড়ির বাহিরে যেতে না পারে।

উল্লেখ্য যে, আব্দুল মতলব গত সোমবার তারিখে করোনা (কোভিড-১৯) পজিটিভ হওয়া আক্রান্ত সাইদুল ইসলামের বাবা। তার বাবা আব্দুল মতলব পেশায় একজন কৃষিজীবী। তার ছেলে হতে আক্রান্ত হয়েছে মর্মে সূত্রে জানা যায়।
আক্রান্ত পরিবারের সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানায়, তাদের বাবার মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের রোগের কোন লক্ষণ এখনো পর্যন্ত দেখা যায়নি।

পাঠকের মতামত: