কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১

চকরিয়ায় দুই ছিনতাইকারীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় এক দোকান কর্মচারীর কাছ থেকে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা দুই ছিনতাইকারীকে আটক করেছে। পরে তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে চকরিয়া পৌরশহরের চিরিংগা হিন্দুপাড়ায় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার সকালে এ ঘটনায় দোকান কর্মচারী মো. আমজাদ হোসেন বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এতে চারজনের নাম উল্লেখসহ আরো বেশ কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে। ছিনতাইয়ের শিকার আমজাদ হোসেন ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা।

এজাহারনামীয় আসামিরা হলেন-চকরিয়া উপজেলার বদরখালী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের কুতুবদিয়া পাড়ার আব্দুর রহিমের ছেলে মোস্তফা কামাল মনির (১৯), চকরিয়া পৌর শহরের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সোসাইটি পাড়ার রফিকুল ইসলামের ছেলে মো. রাফিজুল ইসলাম রাতুল (১৯), একই এলাকার জাফর আলমের ছেলে আরিফ (১৯) ও মনু ড্রাইভারের ছেলে ফাহিম (১৯)।

এজাহারে আমজাদ হোসেন দাবি করেন, আমি চকরিয়া পৌরশহরের বালিকা বিদ্যালয় সড়কের দত্ত অ্যান্ড হার্ডওয়্যার দোকানের কর্মচারী।

বৃহস্পতিবার রাতে দোকান বন্ধ করে বাড়ি যাওয়ার সময় পথরোধ করে পকেটে থাকা ৫ হাজার টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয় চারজন ছিনতাইকারী। পরে আমার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পৌরশহরের বালিকা বিদ্যালয় সড়ক, ওয়াপদা সড়ক, বিমানবন্দর সড়কগুলো এখন ছিনতাইকারীদের দখলে। এসব সড়কের কুলিং কর্নারগুলো তাদের আড্ডার স্থান।

তারা প্রায়শ বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে মোবাইল, নগদ টাকাসহ নানা জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়।

চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, এক দোকান কর্মচারীর কাছ থেকে মোবাইল ছিনতাই ও মারধরের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। ইতিমধ্যে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশের একটি টিম কাজ করছে।

পাঠকের মতামত: