কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

চট্টগ্রামে ইয়াবা-গুলি রেখে ব্যবসায়ীকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেরাই ধরা

চট্টগ্রামে ইয়াবা এবং গুলি রেখে এক ব্যবসায়ীকে ফাঁসাতে গিয়ে গোয়েন্দা পুলিশের জালে ধরা পড়েছে ৫ যুবক। আটককৃতরা নিজেরাই অভিযানের জন্য তথ্য দিয়েছিল। পরে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ এ ঘটনার রহস্য উন্মোচন করেছে।
পুলিশ জানায়, সকালে নগরীর খুলশি এলাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গ্রাহক হিসেবে যায় এক যুবক। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢোকার পর সোফায় বসে এক যুবক পকেট থেকে দুটি প্যাকেট বের করে লুকিয়ে রাখছে। পরে ওই যুবকই গোয়েন্দা পুলিশকে তথ্য দেয় ইয়াবা এবং গুলি থাকার। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ২০০ পিস ইয়াবা এবং ৫ রাউন্ড শটগানের কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ।
সিসিটিভি ফুটেজ অনুসন্ধানে মেলে পুরো ঘটনায় আটককৃতদের জড়িত থাকার প্রমাণ। অভিযান চালিয়ে একে একে ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়।
জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায়, ইফতেখার নামে একজনের হয়ে টাকার বিনিময়ে তারা ওই ব্যবসায়ীকে ফাঁসাতে গিয়েছিল।
রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সিএমপির অতিরিক্ত উপকমিশনার শাহ মো. আবদুর রউফ বলেন, গোপন তথ্যের মাধ্যমে ফোন আসে টাক মাথার চিকিৎসা হয় হেয়ার অ্যান্ড ফেয়ার এ প্রতিষ্ঠানে গেলে ইয়াবা এবং কার্তুজ পাওয়া যাবে।
এ তথ্যর ওপর ভিত্তি করে আমরা সেখানে যাই এবং সোর্সের দেখানো মতে সেগুলো পাই। তারপর সন্দেহ হয়, আমাদের পর্যালোচনায় দেখতে পাই আমাদের যে তথ্যদাতা যে ব্যক্তি তার সঙ্গে লিঙ্কআপ একটি ছেলে কিছুক্ষণ আগেই সেখানে ঢুকেছিল এবং সোফার নিচে কিছু জিনিস লুকিয়ে রাখছিল। দোকানের ফুটেজে দেখা যায়। তারপর আমরা ধরে ফেলি তাদের চালাকি।

পাঠকের মতামত: