কক্সবাজার, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

চট্টগ্রামে একই পরিবারের ছয়জনসহ আক্রান্ত সাত

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার একই পরিবারের ছয়জনসহ সাতজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে, তাদের মধ্যে একজন পুলিশ সদস্যও রয়েছেন।

রোববার চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডিতে মোট ১০১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে ১০ জনের নমুনায় করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া যায় বলে  চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির জানান।

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম জেলার সাতজন এবং লক্ষ্মীপুরের তিনজনের নমুনায় করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে।

চট্টগ্রামে আক্রান্তদের মধ্যে একজন নগরীর দামপাড়া পুলিশ লাইনের। তিনি বন্দর ট্রাফিক বিভাগের কনস্টেবল বলে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান।

তিনি বলেন, ওই কনস্টেবল দামপাড়া পুলিশ লাইন্সের ট্রাফিক ব্যারাকে থাকতেন।

এছাড়া করোনাভাইরাস আক্রান্ত চট্টগ্রাম জেলার বাকি ছয়জন সাতকানিয়া উপজেলার মাদার্শা ইউনিয়নের রূপনগর এলাকার একই পরিবারের সদস্য।

সাতকানিয়ায় করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে প্রথম মৃত ব্যক্তি সিরাজুল ইসলামের জানাজা পড়তে গিয়ে আগেই আক্রান্ত হয়েছিলেন তার মেয়ে জামাই।

তারই পরিবারের ছয়জন সদস্যের রোববার নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ এসেছে বলে জানান সাতকানিয়ার ইউএনও নূরে আলম।

এদের বয়স ১৪ থেকে ৭৫ বছরের মধ্যে। এদের মধ্যে তিনজন নারী ও তিনজন পুরুষ।

আক্রান্তদের বাড়ি আগে থেকেই অবরুদ্ধ ছিল বলে জানান ইউএনও।

রোববার পর্যন্ত চট্টগ্রামের বিআইটিআইডিতে মোট দুই হাজার ৫২২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এদের মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ জন।

চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ৫৩ জন। চট্টগ্রামে এই রোগে মারা গেছেন পাঁচজন।

পাঠকের মতামত: