কক্সবাজার, রোববার, ৭ জুন ২০২০

টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ

ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলছে বাংলাদেশ। একমাত্র টেস্টে বড় জয়, ওয়ানডে সিরিজে ধবল ধোলাইয়ের পর দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতেও সফরকারীদের পাত্তা দেয়নি স্বাগতিকরা।

ছন্দে থাকা বাংলাদেশ আজ বুধবার জিম্বাবুয়েকে ধবল ধোলাইয়ের লক্ষ্যে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় খেলাটি শুরু হবে।

সিলেটে দ্বিতীয় ওয়ানডে ছাড়া একটি ম্যাচেও লড়াই করতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। বাকী ম্যাচগুলোতে সফরকারীদের ব্যাটে-বলে শাসন করেছে তামিম-লিটনরা।

আজকের ম্যাচেও একই লক্ষ্য নিয়ে খেলতে নামবে বাংলাদেশ। দলের অন্যতম স্পিনার টিম মেহেদী হাসান জানান, দাপুটে ক্রিকেট খেলবেন এই ম্যাচেও।

গতকাল টিম হোটেলে মেহেদী হাসান বলেন, ‘যেহেতু আমরা টেস্ট, ওয়ানডে ও প্রথম টি-টোয়েন্টিতে খুব ডমিনেট করে জিতেছি, কোনো পাত্তাই দিইনি, সে ক্ষেত্রে শেষ ম্যাচেও সেভাবেই খেলব।

দ্বিতীয় ম্যাচটির আগের দিন দুই দলই হোটেলে বিশ্রাম নিয়েছে। টিম হোটেলে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়া মেহেদী মনে করেন পাকিস্তান সিরিজেও জিম্বাবুয়েকে হারানোর আত্মবিশ্বাস কাজে লাগবে।

Loading...

মেহেদী বলেন, ‘এই সিরিজটা পুরোপুরি হয়ে গেলে আমাদের আত্মবিশ্বাস আরো বেড়ে যাবে। সে ক্ষেত্রে আমাদের আত্মবিশ্বাসটা পাকিস্তানে কাজে লাগবে যেহেতু ওখানে আমাদের একটা ওয়ানডে ও টেস্ট আছে। আশা করি এই আত্মবিশ্বাস বেশ কাজে দেবে।

এপ্রিলের শুরুতে পাকিস্তানে একটি ওয়ানডে ও একটি টেস্ট খেলতে যাবে বাংলাদেশ। পরের মাসে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে চার ম্যাচের টি-টোয়েন্টি ও তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে লাল-সবুজের দল। টি-টোয়েন্টি ইংল্যান্ডে ও ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে আয়ারল্যান্ডে। সে সিরিজগুলোতেও বাংলাদেশ এমন ছন্দ ধরে খেলতে চায়।

মেহেদী বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি তো টি-টোয়েন্টি সিরিজে ড্রেসিংরুমে আসার পর থেকে এটাই শুনছি, সিনিয়ররা আলোচনা করছিলেন যে এখন থেকে যে সিরিজগুলো হবে আমরা এভাবে ডমিনেট করে খেলার চেষ্টা করব। (মাহমুদউল্লাহ) রিয়াদ ভাই ইতিবাচক কথাবার্তা বলছিলেন ড্রেসিং রুমে।’

বাংলাদেশ প্রথম টি-টোয়েন্টিতে তিন পেসার ও দুই স্পিনার নিয়ে খেলতে নেমেছিল। দলে ফিরেছিলেন সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিম। আজও জয়ী একাদশ নিয়েই মাঠে নামতে পারে।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ:-

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন দাস, আফিফ হোসেন, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মেহেদি হাসান, আমিনুল ইসলাম বিল্পব, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, শফিউল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

পাঠকের মতামত: