কক্সবাজার, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১

টেকনাফে ইউপি নির্বাচন, মাঠে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা

কক্সবাজারের টেকনাফে প্রথম ধাপের অনুষ্ঠিতব্য ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তারিখ পুনরায় ঘোষণার পর থেকে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীরা মাঠে নেমেছেন।

টেকনাফের ৫টি ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকরা আনন্দ মিছিল শুরু করেছেন। এদিকে, দীর্ঘদিন পরে পুনরায় তারিখ ঘোষণায় সাধারণ ভোটারদের মাঝে চাঙ্গাভাব লক্ষ করা গেছে।

সরেজমিন দেখা গেছে, বুধবার বিকালে গরম ও বৃষ্টি উপেক্ষা করে টেকনাফে ৫টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকরা অলিগলিতে ছোট ছোট মিছিল করে ভোট শুরুর কথা জানান দিচ্ছেন ভোটারদের।

টেকনাফের পাঁচ ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন চেয়ারম্যান পদে ৩৫ জন, সংরক্ষিত নারী আসনে ৮০ জন ও সাধারণ আসনে ৩৮৬ জন প্রার্থী।
চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন-হোয়াইক্যং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে-আজিজুল হক (নৌকা), নুর আহমদ আনোয়ারী (চশমা), আলমগীর চৌধুরী (মোটর সাইকেল), মো. ফরিদুল আলম (অনারস) ও আব্দুল্লাহ (হাতপাখা)।

এছাড়া হ্নীলা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আলী হোছাইন (অনারস), কামাল উদ্দিন আহমেদ (মোটরসাইকেল), নুরুল হোসাইন (হাতপাখা) ও রাশেদ মাহমুদ আলী (নৌকা)।

টেকনাফ সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতীক পেলেয়েন আবু ছৈয়দ (নৌকা), দিদার মিয়া (রজনীগন্ধা), নুরুল আবসার (ঢোল), মো. আব্দুল্লাহ (টেবিল ফ্যান), মো. ফারুক আলম (অটোরিকশা), শাকের আহামদ (ঘোড়া), শাহাজান মিয়া (চশমা), হাফেজ আহমদ (টেলিফোন), হোছাইন আহমদ (হাতপাখা), আব্দুর রহমান (অনারস), জিয়াউর রহমান জিহাদ (মোটর সাইকেল) ও আব্দুল ওয়াজেদ (লাঙ্গল)।

তাছাড়া সাবারাং ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতীক পেলেয়েন সোনা আলী (নৌকা), নুর হোসেন (অনারস), মৌলানা নুরুল হক (চশমা) ও হাবিবুর রহমান (মোটরসাইকেল)।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মুজিবুর রহমান (নৌকা), নুর আহমদ (মোটরসাইকেল), মাওলানা আব্দুর রহমান (চশমা), মাওলানা ফিরুজ আহমদ খান (টেলিফোন) ও জাহেদ হোসেন (অনারস)।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. বেদারুল ইসলাম বলেন, পুনরায় তারিখ ঘোষণার পর থেকে প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করতে পারবেন। আগামী ২১ জুন নির্বাচন সম্পন্ন করার যাবতীয় প্রস্তুতি রয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে গত ৪ এপ্রিল নির্বাচন কমিশন ১১ পৌরসভা ও ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেন।

পাঠকের মতামত: