কক্সবাজার, রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০

টেকনাফে দিনদুপুরে গুলি করে এক ব্যক্তিকে হত্যা

আব্দুস সালাম, টেকনাফ::

কক্সবাজারের টেকনাফে দিনদুপুরে ডাকাত ওসন্ত্রাসী গ্রুপের গুলিতে মোহাম্মদ তৈয়ব (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালীর বাসিন্দা দুধু মিয়ার ছেলে। গিয়াস বাহিনীর গ্রুপের সদস্যরা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলা হ্নীলা রঙ্গিখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ মডেল থানার ওসির দায়িত্বে থাকা (তদন্ত ) কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক এবিএমএস দোহা।

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালী এলাকায় গিয়াস উদ্দিন গ্রুপের নেতৃত্বে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে প্রায় সময় গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এই গ্রুপের প্রত্যেক সদস্যের নামে থানায় ৬ থেকে ১২টি করে মামলা রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর খাতায় তারা ডাকাত নামে তালিকাভুক্ত।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে হ্নীলার রঙ্গিখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে আবুল আলমের গ্রুপের সদস্য মোহাম্মদ তৈয়ব একটি মুদির দোকানে চেয়ারে বসা ছিলেন। ওই সময় হঠাৎ করে গিয়াস উদ্দিনের গ্রুপের সদস্যরা একটি টমটম যোগে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মিজানুর রহমান ওরফে বাগাচ্ছার নেতৃত্বে দোকানের সামনে এসে কোনো কথা ছাড়াই তৈয়ুবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় এবং তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন। পরে তারা পালিয়ে যান। খবর পেয়ে তৈয়বের আত্মীয়স্বজনরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। ঘটনার পরপর পুলিশ, র‍্যাব ও সেনাবাহিনীর একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। এরপর পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে।

নিহত ব্যক্তির শরীরে একাধিক গুলির চিহ্ন দেখা গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে টেকনাফ মডেল থানার ওসির দায়িত্বে থাকা (তদন্ত ) পরিদর্শক এবিএমএস দোহা বলেন, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

 

পাঠকের মতামত: