কক্সবাজার, বুধবার, ১৮ নভেম্বর ২০২০

টেকনাফে যাত্রীবাহি সিএনজি থেকে ৭০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার

গিয়াস উদ্দিন ভূলু :
সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে র‍্যাব-১৫ সদস্যদের মাদক বিরোধী চলমান অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, কক্সবাজারে দায়িত্বরত র‍্যাব-১৫ সদস্যরা প্রতিনিয়ত মিয়ানমার থেকে পাচার হয়ে আসা হাজার হাজার মরন নেশা ইয়াবাসহ মাদক কারবারে জড়িত অপরাধীদের আটক করে যাচ্ছে।

এমন কোন দিন নেই র‍্যাবের হাতে ইয়াবাসহ আটক হচ্ছে না মাদক কারবারী।

তারই ধারাবাহিকতায় ৬ অক্টোবর (মঙ্গলবার) সন্ধার দিকে গোপন সংবাদের মাধ্যমে র‍্যাব সদস্যরা জানতে পারে টেকনাফ হ্নীলা ইউনিয়নের অন্তর্গত চৌধুরীপাড়া সংলগ্ন মহাসড়কের পশ্চিম পার্শ্বে মাদক ক্রয়-বিক্রয় করার জন্য মাদক ব্যবসায় জড়িত বেশ কয়েকজন অপরধারী অবস্থান নিয়েছে।

সেই তথ্য অনুযায়ী মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে র‍্যাবের একটি দল উক্ত এলাকায় অভিযানে গেলে অপরাধীরা র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কৌশলে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এরপর ঘটনাস্থল পেলে যাওয়া মাদক পাচারে ব্যবহার হওয়া যাত্রিবাহী নং (১১-৫৫৪১) একটি সিএনজি তল্লাশী করে সিএনজির ভিতর অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা কাপড়ের তৈরী একটি স্টুডেন্ট ব্যাগ থেকে ৩ কোটি, ৫০ লাখ টাকা মুল্যের ৭০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব-১৫’র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, উদ্ধারকৃত এই ইয়াবা গুলোর সাথে জড়িত মাদক ব্যবসায়ীদের আইনের আওয়তাই নিয়ে আসার জন্য র‍্যাব সদস্যদের মাদক বিরোধী চলমান এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

পাঠকের মতামত: