কক্সবাজার, রোববার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে ৩ ডাকাত নিহতের ঘটনায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মিষ্টি

কক্সবাজারের টেকনাফে গহীন পাহাড়ে র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলির ঘটনায় জকির বাহিনীর প্রধান জকিরসহ ৩ ডাকাত নিহতের ঘটনায় টেকনাফের নয়াপাড়া ও শালবাগান ক্যাম্পের সাধারণ রোহিঙ্গাদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। তারা মিষ্টি বিতরণ করে আনন্দ উল্লাস করেছে পাশাপাশি দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে। রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় জনগোষ্ঠাীর মাঝেও স্বস্তি দেখা দিয়েছে।

বুধবার বিকালে নয়াপাড়া ও শালবাগান দুই ক্যাম্পের রোহিঙ্গারা নয়াপাড়া ক্যাম্পের সি ব্লকে মিষ্টি বিতরণ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন

এ সময় জকির বাহিনীর হাতে নির্যাতিত সাধারণ রোহিঙ্গারা এখানে জড়ো হয়। তারা র‌্যাব ও আইন শৃংখলাবাহিনীর জন্য দোয়া করেন।

রোহিঙ্গারা দাবি করেন রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে যাতে আর কোন বাহিনীর জন্ম না হয় সেজন্য নজরদারি যাতে অব্যাহত থাকে।
এ সময় সেখানে জড়ো হওয়া ফরিদ আলম নামে একজন রোহিঙ্গা জানান, ডাকাত জকির তার ভাইকে হত্যা করেছে।

এ সময় জকির বাহিনীর হাতে নিহত রোহিঙ্গা শফিউল্লার স্ত্রী জানান, গত ডিসেম্বর মাসে জকির তার স্বামীকে ঘর থেকে ধরে নিয়ে যায়। আজ পর্যন্ত তার লাশের হদিস মেলেনি।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান জানান, বুধবার বিকাল পর্যন্ত থানায় কোন মামলা দায়ের হয়নি। ময়নাতদন্তের পর নিহতদের মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে ।

এছাড়া জকিরের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় হত্যা, ডাকাতিসহ ১৩টি মামলা রয়েছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টেকনাফ জাদিমুড়া শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ে অবস্থানকারী রোহিঙ্গা ডাকাত দলের সাথে র‌্যাব সদস্যদের ঘন্টাব্যাপী গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এতে দুধর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত জকির বাহিনীর জকিরসহ ৩ ডাকাত নিহত হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দেশি বিদেশি ৯টি অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গুলি উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১৫ এর সদস্যরা। গোলাগুলির ঘটনায় র‌্যাবের এক সদস্যের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

র‌্যাব ১৫ এর অধিনায়ক আজিম আহমেদ জানান, টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্প গুলোতে মুর্তিমান আতংক ছিল জকির। রোহিঙ্গা ও স্থানীয়রা ছিল তার ভয়ে তটস্থ। দীর্ঘদিন চেষ্টা চালিয়ে গতকাল শালবাগান ক্যাম্পের পাশে জকিরের আস্তানা ঘিরে ফেললে র‌্যাব সদস্যদের উপর গুলিবর্ষণ করে তারা। এ সময় দুই পক্ষের গুলাগুলিতে জকিরসহ ৩ ডাকাত নিহত হন। এঘটনায় র‌্যাব এর সদস্য হাতে গুলিবিদ্ধ হন।

পাঠকের মতামত: