কক্সবাজার, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩

টেকনাফে ২ লাখ ১০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৪

টেকনাফে অভিযান চালিয়ে ২ লাখ ১০ হাজার ইয়াবাসহ ৪ জন মাদক কারবারিকে আটক করেছে বিজিবি ও র‌্যাব।

রোববার (১৫ অক্টোবর) বেলা ১১টায় এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছে ২ বিজিবি ও র‌্যাব-১৫।

এক বার্তায় টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মোঃ মহিউদ্দীন আহমেদ জানান, মিয়ানমার থেকে সীমান্ত পার হয়ে টেকনাফের দেড় নম্বর নামক এলাকা দিয়ে মাদকের একটি বড় চালান প্রবেশের তথ্য পায় বিজিবি। তাই নাজিরপাড়া বিওপি’র বিজিবির একটি দল দেড় নম্বর নামক এলাকায় গিয়ে কেওড়া বাগানে কৌশলগত অবস্থান নেয়।

“শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ৩ জন ব্যক্তি ১টি কাঠের নৌকাযোগে সীমান্তের শূন্যলাইন অতিক্রম করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে চলে আসে। এসময় তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করলে বিজিবি’র উপস্থিতি টের পেয়ে নৌকায় থাকা ব্যক্তিরা রাতের অন্ধকারে নাফ নদীতে লাফিয়ে ঘন কেওড়া বাগানের ভেতর পালিয়ে যায়।”

SPONSORED CONTENT

লেঃ কর্নেল মোঃ মহিউদ্দীন আহমেদ আরও জানান, পরে বিজিবি টহলদল ঘটনাস্থলে পৌঁছে নৌকাটি তল্লাশি করে নৌকার পাটাতনের নীচে অভিনব পদ্ধতিতে লুকায়িত অবস্থায় একটি প্লাস্টিকের বস্তা উদ্ধার করে। এরপর বস্তার ভেতর থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবা জব্দ করতে সক্ষম হয়। এসময় কাঠের নৌকাটিও জব্দ করা হয়। এব্যাপারে পালিয়ে যাওয়া ব্যক্তিদের সনাক্ত করার জন্য ব্যাটালিয়নের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে বলে জানার বিজিবি অধিনায়ক।

এদিকে রোববার বেলা ১১টায় কক্সবাজারস্থ র‌্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (ল’ এন্ড মিডিয়া) মো: আবু সালাম চৌধুরী এক বার্তায় জানান, টেকনাফের মৌলভীপাড়া অভিযান চালিয়ে ৬০ হাজার ইয়াবাসহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন, টেকনাফের মৌলভীপাড়া এলাকার মো. রফিকের ছেলে সৈয়দুল হক ওরফে সিদু (২৫), ইউসুফ জলালের ছেলে সেলিম উল্লাহ (৩৩) নাজির পাড়া এলাকার বদিউল আলমের ছেলে ইফসুফ (৩৬) এবং রফিকের পুত্র ফারুক (২০)।

উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ইয়াবাসহ ধৃত এবং পলাতক মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে টেকনাফ মডেল থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

পাঠকের মতামত: