কক্সবাজার, শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

এপিবিএন ও সেনাবাহিনীর যৌথ অভিযান

টেকনাফে ৫ রোহিঙ্গা আটক, অস্ত্র উদ্ধার

টেকনাফের চাকমারকুল ক্যাম্পে এলজি ও গুলিসহ পাঁচ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) ও সেনাবাহিনী।
আজ বুধবার (৭ জুলাই) ভোররাত সাড়ে ৩টার সময় চাকমারকুল ক্যাম্প-২১ এ জনৈক রশিদ উল্লাহর ঘরে অভিযান পরিচালনা করে এপিবিএন ও সেনা সদস্যরা।
এপিবিএন সূত্রে জানা যায়, গোপন সূত্রে খবর আসে যে টেকনাফ (ক্যাম্প-২১) চাকমারকুল রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এ ব্লক-বি/৬ এর রোহিঙ্গা রশিদ উল্লাহর ঘরে ৫/৬ জন দুষ্কৃতকারী অস্ত্রসহ অবস্থান করছে।
এমন সংবাদের ভিত্তিতে চাকমারকুল এপিবিএন ও সেনাবাহিনী যৌথ অভিযান পরিচালনা করে।
পুলিশ ও সেনাবাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে রোহিঙ্গা রশিদ উল্লাহ কৌশলে পালানোর উদ্দেশ্যে দৌড় দিলে তার কোমর হতে একটি দেশীয় তৈরি এলজি পড়ে যায়। সাথে সাথে পুলিশ অস্ত্র ও ১ রাউন্ড গুলি জব্দ করে৷
এ সময় উক্ত ঘরে থাকা চাকমারকুল ক্যাম্পের রোহিঙ্গা মো. সেলিমের ছেলে মো. জুবায়ের (১৯), আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে মো. নুর আলম(২০), জামাল উদ্দিনের ছেলে মো. ইয়াকুব (২৭), ইসলামের ছেলে আমির হোসেন (৩০), আবু তাহেরের ছেলে রিদুয়ানকে(১৮) আটক এবং তাদের দেখানো মতে ঘর হতে আরো তিন রাউন্ড গুলি ও দু’টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।
কক্সবাজার ১৬ এপিবিএন অধিনায়ক (এসপি) তারিকুল ইসলাম তারিক জানান, পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ধৃত আসামীদের টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত: