কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০

ডিজিটালাইজেশনের ছোঁয়া লাগেনি ৪ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে

সারাদেশে নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২০ হাজার ৩০টি। এরমধ্যে ১৬ হাজার ১৯০টি বিদ্যালয়ে আছে ইন্টারনেট সেবা। অর্থাৎ প্রায় ৪ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নেই কোন ইন্টারনেট সংযোগ। ২০১৭-১৯ এই তিন বছরে নতুন করে ইন্টারনেট সংযোগের আওতায় এসেছে মাত্র ১৬০টি বিদ্যালয়। স্কুল পর্যায়ে হাজারের অধিক প্রতিষ্ঠানে নেই কোন ধরণের বিদ্যুৎ সংযোগ।

বাংলাদেশ তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরো (ব্যানবেইজ) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এছাড়াও দেশের উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায় থেকে মাস্টার্স পর্যন্ত ৪৫৫১টি কলেজের মধ্যে ১৩৩ কলেজে এখন পর্যন্ত বিদ্যুৎ সেবা পৌঁছায়নি। যার মধ্যে বেসরকারি কলেজ থেকে সরকারি কলেজও রয়েছে।

মুজিববর্ষে সারাদেশকে শতভাগ বিদ্যুৎ সরবরাহের আওতায় আনতে কাজ করছে সরকার। এছাড়াও দেশে প্রয়োজনের তুলনায় অধিক বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে। ফলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ না থাকাকে দুঃখজনক বলছেন শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর প্রধান পরিসংখ্যানবিদ আলমগীর হোসেন বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, দেশের অনেক উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন প্রকল্পের আওতায় এসেছে। এরপরেও দেখা যায় ওই উপজেলার একাধিক কলেজে কোন বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। তবে আশার কথা যে, গত সপ্তাহে যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিদ্যুৎ শূন্য ছিলো তাদের তালিকা নিয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রণালয়।

এদিকে রোববার সকালে ঢাকা কলেজে একাদশ শ্রেণির নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এবছর ভর্তি হওয়া ১৩ লাখ শিক্ষার্থীর জন্য কলেজের মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম, ল্যাপটপ ও ইন্টারনেট সংযোগের দুরবস্থার চিত্র উঠে এসেছে ব্যানবেইজের পরিসংখ্যানে।

সরকারি বেসরকারি মিলিয়ে ৪৫৫১টি কলেজের মধ্যে ৩৯৮৬টি কলেজে মাল্টিমিডিয়া থাকলেও এখন পর্যন্ত ৫৬৫টি প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম নেই। ৩৫৭৯টি কলেজে কম্পিউটার আছে তবে প্রায় একহাজার কলেজ এখনো কম্পিউটার ছাড়াই চলছে। এছাড়াও শতকরা হিসেবে ১৫ ভাগের অধিক কলেজে এখনো কোন ইন্টারনেট সংযোগ নেই। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ২০ হাজার কম্পিউটার রয়েছে যার প্রায় ৪ হাজার কম্পিউটার নষ্ট অবস্থায় পড়ে আছে।

এ বিষয়ে শিক্ষা সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনো অনলাইন শিক্ষা প্রদানে সামর্থ্য অর্জন করেনি তা নিরসনে কাজ করছে সরকার। শিক্ষা মন্ত্রণালয় দ্রুত এসব সমস্যা সমাধান করবেন বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

পাঠকের মতামত: