কক্সবাজার, শনিবার, ৬ মার্চ ২০২১

দুইবারের এমপির নতুন ঠিকানা গৃহহীনদের ঘর

ছিলেন দুইবারের সংসদ সদস্য। সহায়-সম্পদ আর চাকচিক্যে ভরা ছিলো সোনালী অতীত। সেই অতীত এখন ভীষণ বিষাক্ত স্মৃতি ময়মনসিংহের এনামুল হক জজ মিয়ার। সব হারিয়ে নিঃস্ব জজ মিয়ার ঠিকানা এখন ভাড়া করা খুপড়ি ঘর। হাত পেতে চলছে জীবন। অবশ্য নতুন আশ্রয়স্থল গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দ দেয়া ঘর।

এনামুল হক জজ মিয়া। ভাড়া থাকেন খুপড়ি ঘরে। ১৯৮৬ ও ৮৮ সালে ময়মনসিংহ-১০ গফরগাঁও আসনে জাতীয় পার্টির টিকিট নিয়ে হয়েছিলেন দুই মেয়াদের সংসদ সদস্য। জীবনযাপনে ছিলো বিলাসিতার ছাপ, পাশে ছিলো দুই স্ত্রী ও সন্তান।

একটা সময় ভালোবেসে জমিজমা-সহায়সম্বল সব লিখে দেন আপনজনদের। এই স্বজনেরই এখন তাকে ছুড়ে ফেলে দিয়েছে রাস্তায়। সব হারিয়ে নিঃস্ব জজ মিয়ার এতোদিনের ঠিকানা গফরগাঁও শহরের এই খুপরি ঘর। এক রুমের ভাড়া বাসায় শেষ জীবনে সঙ্গী তৃতীয় স্ত্রী ও এক ছেল। খাট কেনার সামর্থ নেই, বৃদ্ধ বয়সের থাকতে হয় মাটিতেই। হাতপেতে যা মিলে তা দিয়েই চলে সংসার।

অবশেষে গৃহহীনদের বরাদ্দকৃত প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরেই নতুন ঠিকানা খুজে পেলেন দুই বারের সাবেক এই সংসদ সদস্য।

যে মানুষটি আপনজনের জন্য জীবনের ঝুঁকি নেয়, আরাম-আয়েশকে বিসর্জন করে; জীবনের শেষ সময়ে সে মানুষটি আপনজনদের পাবে পাশে এ চাওয়া নিশ্চয় অবান্তর কিছু নয়!

পাঠকের মতামত: