কক্সবাজার, শুক্রবার, ২ অক্টোবর ২০২০

দুদকের মামলায়ও গ্রেপ্তার ওসি প্রদীপ

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার আসামি টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। অপর পলাতক আসামি প্রদীপের স্ত্রী চুমকি কারনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

প্রদীপ কুমার দাশকে আজ সোমবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতে হাজির করার পর শুনানি শেষে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ সৈয়দ আশফাকুর রহমানের আদালত এ আদেশ দেন।

আদালতের পিপি অ‌্যাডভোকেট মেজবা উদ্দীন চৌধুরী জানিয়েছেন, আদালত ওসি প্রদীপকে দুদকের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। প্রদীপ কুমার দাশের পক্ষে এ মামলায় জামিনের আবেদন করা হয়েছিল। আদালত জামিন আবেদনের শুনানির জন‌্য আগামী ২০ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন।

এ মামলার অপর আসামি ওসি প্রদীপের স্ত্রী চুমকি পলাতক। চুমকি যাতে দেশ ছেড়ে পালাতে না পারেন, সে ব্যাপারে দুদকের পক্ষ থেকে পুলিশকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

দুদকের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট সানোয়ার আহমেদ লাভলু জানান, প্রায় চার কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে গত ২৩ আগস্ট ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও তাঁর স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুদকের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দিন।

গত ২ সেপ্টেম্বর এই মামলায় আসামি প্রদীপকে ‘শ্যোন অ্যারেস্ট’ বা গ্রেপ্তার দেখান আদালত। একই সঙ্গে ১৪ সেপ্টেম্বর তাঁকে আদালতে হাজির করার আদেশ দেন চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক শেখ আশফাকুর রহমান।

মামলার বাদী দুদকের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দিন জানান, ২০১৮ সালে প্রদীপ ও তাঁর স্ত্রীর অবৈধ সম্পদ অর্জনের তদন্ত শুরু করে দুদক। ২০১৯ সালের ৯ এপ্রিল তাঁদের সম্পদের হিসাব জমা দিতে বলা হলেও চুমকি তা জমা দেন ২০১৯ সালের ১২ মে। জমা দেওয়া হিসাবে তথ‌্যের গরমিল থাকায় এবং প্রায় চার কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

পাঠকের মতামত: