কক্সবাজার, সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০

নাইক্ষ্যংছড়িতে আরো ৫ জনের করোনা শনাক্ত, বাড়ী লকডাউন

আমিনুল ইসলাম, নাইক্ষ্যংছড়ি(বান্দরবান)::
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় এক দিনে নতুন করে আরো ৫  ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে।

রবিবার (২১ জুন) রাত সাড়ে ৮টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডাঃ আবু জাফর মোঃ ছলিম।
তিনি বলেন, গত ২০ জুন শনিবার আউটডোরে চিকিৎসা নিতে আসা ৫ জনের করোনা উপসর্গ সন্দেহ হয়। এদের সবার জ্বর, সর্দি-কাশি ও গলা ব্যাথা থাকায় নমুনা সংগ্রহ করে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে পাঠানো হলে আজ সন্ধ্যায় তদের  রিপোর্ট পজেটিভ আসে।
হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়,
করোনা শনাক্ত ৫ জন রোগী পৃথক ভাবে আউটডোরে চিকিৎসা নিতে আসে। তাদের মধ্যে একজন হাসপাতালের জরুরী বিভাগের ওয়ার্ডে  ভর্তি হয়।  অপর ৪ জন চিকিৎসা নিয়ে ঘরে চলে যায়। তবে এদের নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়।

পজেটিভ  হওয়া ৫ রোগীর মধ্যে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম এলাকার জামাল হোসেনের পুত্র ওয়াহিদুল ইসলাম(২০),মাদরাসা ঘোনার মৃত.আব্দুল মোতালেবের পুত্র হাবীবুর রহমান(৬০), কবির আহাম্মদের পুত্র পেঠান আলী (৪০), সদর এলাকার মিজানুর রহমানের পুত্র মো.সোলেমান(৩২) ও ছালামী পাড়ার মো,ইসমাইলের পুত্র মো.ওসমান(২০)।
রবিবারে ৫জনসহ  এই পর্যন্ত নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতালে  নমুনা সংগ্রহ করা হয় ৩৫৪ জনের।
এর মধ্যে ২১ জনের রিপোর্ট পজেটিভ আসলেও বাকী ৩৩৩ জনের নেগেটিভ আসে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া আফরিন কচি জানান, করোনা শনাক্ত ৫ জনের সংস্পর্শ থাকা পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ এবং ঘর-বাড়ি লকডাউনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, সর্বমোট নমুনা পরীক্ষাকরা হয়েছে ৩৫৪ জনের, পজিটিভ ২১জনের।  নাইক্ষ্যংছড়ি ২১ জন করোনা পজেটিভ রোগীর মধ্যে আইসোলেশনে ভর্তি থাকা ১১ জন রোগী চিকিৎসা পেয়ে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন। বাকী ১০ জনের মধ্যে ২ জন হাসপাতাল আইসোলেশনে  বাকী ৮ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে থেকে চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

পাঠকের মতামত: