কক্সবাজার, সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

নারীদের কাজ সন্তান জন্মদান, মন্ত্রীসভায় না: তালেবান

নারীদের জন্য মন্ত্রিসভায় মন্ত্রিত্ব নয়, কারণ তাদের সন্তান জন্ম দিতে হয়। শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) দেশটির সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেছেন তালেবান মুখপাত্র সাইদ জিকরুল্লা।

তালেবান মন্ত্রিসভায় কোনও নারী সদস্য না থাকায় দেশজুড়ে নারীদের প্রতিবাদ ও নিন্দার মুখে এ মন্তব্য করলেন তালেবানের এ মুখপাত্র।

টোলো নিউজের পক্ষ থেকে তালেবান মুখপাত্র সাইদ জিকরুল্লাহ হাসিমির কাছে মন্ত্রিসভায় কোনো নারী না রাখার কারণ জানতে চাওয়া হয়। জবাবে তিনি বলেন, ‘নারীরা মন্ত্রী হতে পারে না, এটা এমন কিছু যে তাদের গলায় পরিয়ে দেওয়া হলো, কিন্তু তারা ভার নিতে পারলো না। মন্ত্রিসভায় নারীদের থাকার প্রয়োজন নেই, তাদের উচিত সন্তান জন্ম দেওয়া। বিক্ষোভকারী নারীরা আফগানিস্তানের সব নারীর প্রতিনিধি নয়।’

সাক্ষাৎকার গ্রহণকারী পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘নারীরা সমাজের অর্ধেক’। জবাবে হাসিমি বলেন, ‘কিন্তু আমরা তাদের অর্ধেক মনে করি না। কোন ধরনের অর্ধেক? অর্ধেক শব্দটিই ভুল। অর্ধেক মানেই তাদের মন্ত্রিসভায় রাখতে হবে আর কিছুই নয়। আর যদি তাদের অধিকার হরণ করেন, তাহলে কিছু হবে না।’

তালেবান আফগানিস্তানে ৯০-এর দশকের প্রথমার্ধে ক্ষমতায় এসে নারীদের ঘরবন্দি করে ফেলে। এবারও তারা ক্ষমতা দখলের পর নারীদের ব্যাপারে কড়াকড়ি শুরু করেছে। সরকার গঠনে সব মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে পুরুষদেরই দেওয়া হয়েছে। এতে কোনো নারী স্থান পায়নি। এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছেন আফগান নারীরা। দেশটির রাজধানী কাবুল ও বাদাখশান প্রদেশে এ বিক্ষোভ শুরু হয়েছে।

গত ১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর বারবার তালেবানের তরফ থেকে শরীয়া আইন অনুযায়ী নারী অধিকার রক্ষার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও গত সপ্তাহে ঘোষিত নতুন মন্ত্রিসভায় কোনো নারী প্রতিনিধিকে রাখা হয়নি।

পাঠকের মতামত: