কক্সবাজার, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

নিজেকে আফগান প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করলেন সালেহ

রাজধানী কাবুলসহ বেশিরভাগ প্রদেশ বিদ্রোহীগোষ্ঠী তালেবানের দখলে যাওয়ার দু’দিন পর আফগানিস্তানের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ নিজেকে দেশের ‘বৈধ এবং সাংবিধানিক’ প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। কাবুলের উত্তরপূর্বের পাঞ্জশির উপত্যকায় আত্মগোপনে থাকা সাবেক এই ভাইস-প্রেসিডেন্ট মঙ্গলবার নিজেকে দেশের তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন।

টুইটারে দেয়া বার্তায় তিনি বলেছেন, আফগানিস্তানের সংবিধান অনুযায়ী— প্রেসিডেন্টের অনুপস্থিতি, পলায়ন অথবা মৃত্যুর পর ভাইস প্রেসিডেন্ট দেশের তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন। বর্তমানে আমি দেশের ভেতরে আছি এবং আমিই দেশের একমাত্র বৈধ তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট। আমি সব নেতার সমর্থন এবং সহায়তা পাওয়ার জন্য তাদের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করছি।

বিদ্রোহীগোষ্ঠী তালেবানের কাবুল দখল এবং প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির ওমানে পালিয়ে যাওয়ার মাধ্যমে আফগান সরকারের পতন হয়। গনি নেতৃত্বাধীন সরকারের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহর দেশ ছাড়ার গুঞ্জন উঠলেও অপর এক টুইট বার্তায় তিনি কখনোই তালেবানের কাছে মাথানত করবেন না বলে হুঙ্কার দিয়ে বিদ্রোহী এই গোষ্ঠীকে সর্বশক্তি দিয়ে প্রতিরোধ করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির সভাপতিত্বে এক নিরাপত্তা বৈঠকে অংশ নেয়ার পর সালেহ বলেছিলেন, তিনি দেশের সশস্ত্র বাহিনীকে নিয়ে গর্বিত এবং সরকার তালেবানকে প্রতিরোধে শক্তি বৃদ্ধি করতে যথাসাধ্য চেষ্টা করবে।

রবিবার আমরুল্লাহ সালেহ বলেছিলেন, আমাকে যে লাখ লাখ মানুষ শুনছেন আমি তাদের হতাশ করবো না। আমি কখনোই তালেবানদের সাথে এক ছাদের নিচে থাকবো না। কখনোই না।

সূত্র: পূর্বকোণ

পাঠকের মতামত: