কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০

টেকনাফে বিজিবি’র অভিযানে ১ লক্ষ ২০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার 

মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান পাচারকালে বিজিবি সদস্যদের বাধার মুখে কাঠের নৌকাসহ ১লাখ ২০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি ফেলে পালালেন পাচারকারীরা। পরে বিজিবি সদস্যরা ইয়াবার চালানটি জব্দ করেছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত নয়টার দিকে
টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের লাফারঘোনা নাফ নদী এলাকা থেকে ইয়াবা বড়িগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।
এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লে.কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রাতের টেকনাফ ২ বিজিবির ব্যাটালিয়নের টেকনাফ সদর সীমান্ত চৌকির একটি বিশেষ টহল দল মাদকের চালান অনুপ্রবেশের সংবাদ পেয়ে নাফনদীর বিআরএম-৫ পয়েন্টের ৫০০গজ পূর্ব দিকে উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের লাফারঘোনা পয়েন্টে অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর কয়েকজন লোক একটি হস্তচালিত নৌকা নিয়ে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ে। তখন বিজিবি জওয়ানেরা তাদের চ্যালেঞ্জ করলে মাদক পাচারকারীরা নৌকা ফেলে কেওড়া বাগানের জঙ্গলের ভেতর দিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে ২টি ব্যাগসহ ১টি কাঠের নৌকা জব্দ করা হয়। পরে ওই ব্যাগের ভিতর থেকে ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকার মুল্যের ১লাখ ২০হাজার ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়।
তিনি আরও বলেন, উদ্ধার করা ইয়াবা বড়িগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে, যা পরবর্তীতে উদ্ধর্তন কর্মকর্তা,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি ও স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে ।

পাঠকের মতামত: