কক্সবাজার, রোববার, ২৬ মে ২০২৪

পানির নিচে বিশ্বের প্রথম মসজিদ নির্মাণ করছে দুবাই

পানির তলদেশে বিশ্বের প্রথম ভাসমান মসজিদ নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে ‍দুবাই। অনন্য এই মসজিদ নির্মাণে খরচ হবে সাড়ে পাঁচ কোটি দিরহাম। শিগগিরই এই মসজিদের নির্মাণকাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে দুবাই কর্তৃপক্ষ। খবর খালিজ টাইমস।

 

ধর্মীয় পর্যটন প্রকল্প সম্পর্কে এক ব্রিফিংয়ে এ মসজিদ নির্মাণ পরিকল্পনার ঘোষণা দেয় দুবাইয়ের ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড চ্যারিটেবল অ্যাক্টিভিটিস বিভাগ।

 

প্রস্তাবিত এই মসজিদের বেশ কয়েকটি ছবি খালিজ টাইমসের সঙ্গে শেয়ার করেছে কর্তৃপক্ষ। মসজিদটি তিনতলা বিশিষ্ট হবে। এর দুটি অংশ থাকবে। একটি পানির ওপর অন্যটি পানির নিচে। পানির ওপরে থাকবে বসার জায়গা ও একটি কফিশপ। নারী ও পুরুষের জন্য আলাদা আলাদা বসার ব্যবস্থা করা হবে। আর পানির তলদেশের অংশে থাকবে নামাজের ব্যবস্থা। সেখানে ৫০ থেকে ৭৫ জন মুসল্লি প্রতি ওয়াক্তে নামাজ পড়তে পারবেন। এ ছাড়া পানির নিচেই থাকবে অজু ও ওয়াশরুমের ব্যবস্থা।

সংস্থাটির কর্মকর্তা আহমেদ আল মনসুরি খালিজ টাইমসকে বলেছেন, শিগগিরই এ মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

 

 

মসজিদটির ঠিক কোথায় নির্মাণ করা হবে, তা এখনো জানানো হয়নি। তবে আহমেদ আল মনসুরি বলেন, এটি সমুদ্র উপকূলীয় এলাকার কাছাকাছি নির্মাণ করা হবে। মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে সংযুক্ত একটি সেতুর মাধ্যমে সেখানে মুসল্লিরা যেতে পারবেন।

 

তিনি আরও জানান, সব ধর্মের মানুষই এই মসজিদ পরিদর্শন করতে পারবে। তবে তাদের অবশ্যই শালিন ও ইসলামি রীতিনীতি মেনে চলতে হবে।

পাঠকের মতামত: