কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০

পুলিশি নির্যাতনে মৃত্যুর প্রতিবাদে রণক্ষেত্র কলম্বিয়া, নিহত ৭

কলম্বিয়ায় পুলিশি নির্যাতনের ভিডিও ভাইরালের প্রতিবাদে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে সাধারণ মানুষের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার ১০ সেপ্টেম্বরের ঘটনায় ৭ জন নিহত হয়েছেন, আহত হন দেড়শতাধিক মানুষ।

জানা গেছে, কলম্বিয়ার এক নাগরিককে বন্দুক দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলেন দেশটির পুলিশ। এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষোভ ফেটে পড়ে আন্দিয়ান জাতি। প্রতিবাদে রাজধানী বোগোতার রাজপথে ভাংচুর, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষোভকারীরা।
আরও পড়ুন: রাশিয়া-চীন-ইরানের হ্যাকারদের নজরদারিতে ট্রাম্প-বাইডেন

তাদের জ্বালাও-পোড়াও ধ্বংসযজ্ঞ কর্মসূচি ঠেকাতে মোতায়েন করা হয় সশস্ত্র নিরাপত্তা সদস্যদের।
একপর্যায়ে আন্দোলনকারীদের লক্ষ্য করে কাঁদানে গ্যাস ও গুলি ছোঁড়ে পুলিশ। এতে পরিস্থিতি আরও অবনতি হয়। শহরের ছোট ছোট পুলিশ স্টেশনে আগুন ধরিয়ে দেয় বেশ কয়েকজন উগ্র আন্দোলনকারী।
নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘাতের এক পর্যায়ে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

পুলিশি বর্বর নির্যাতনে মৃত্যুর ঘটনা মেনে নেয়া হবে না জানিয়েছেন বোগোতার মেয়র ক্লডিয়া লোপেজ। তবে, শহরজুড়ে তাণ্ডব চালানোর ঘটনায় নিন্দা জানান তিনি।
কলম্বিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী কার্লোস হোমলেস ট্রুজিলো এক বিবৃতি বলেন, আন্দোলনকারীরা শুধু রাজধানীতেই তাদের বিক্ষোভ সীমাবদ্ধ রাখেনি, মেডেল্লিন, পেরেইডা এবং ইবাগুয়ের পুলিশ স্টেশনগুলোও জ্বালিয়ে দিয়েছে।
এদিকে ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এ ঘটনার তদন্ত চলছে বলেও নিশ্চিত করে দেশটির সরকার।

পাঠকের মতামত: