কক্সবাজার, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০

পেকুয়ার মাহফিলে আসতে পারেনি মিজান আযহারী ও তারেক মনোয়ার

পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের বারবাকিয়া বাজার ব্রিজের দক্ষিণ পশ্চিম পার্শ্বে অবস্থিত ঐতিহাসিক বৃহত্তরসাবেক গুলদী তাফসীর ময়দানে আজ ৬ ডিসেম্বর শুক্রবার সারাদিন চলমান আলোচিত তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে আসতে পারেনি দেশের বর্তমান সময়ের শ্রেষ্ঠ আলোচিত বক্তা মিজানুর রহমান আল-আযহারী ও আরেক প্রসিদ্ধ বক্তা তারেক মনোয়ার। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিষিদ্ধ করায় তারা তাফসির মাহফিলে যোগদান করতে পারেনি। মাহফিলের শেষ অধিবেশনের এই দুইজন খ্যাতনামা বক্তার ওয়াজ পেশ করার ছিলো। মাহফিল আয়োজন কমিটি এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মাহফিল আয়োজক কর্তৃপক্ষ দিগন্ত ফাউন্ডেশনের প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক নুরুজ্জামান মনজু জানান, প্রশাসনের শর্ত মানতে হওয়ায় আলোচিত বক্তা মিজানুর রহমান আল-আযহারী ও আরেক প্রসিদ্ধ বক্তা তারেক মনোয়ারকে আসতে দেয়া হয়নি। বৃহস্পতিবার রাতে প্রশাসনের এক রুদ্ধদার বৈঠক থেকে এই সিদ্ধান্ত দেয়া হয়। তাদের আনা হলে পুরো মাহফিলের অনুমতিই পাওয়া যেতো না।
প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাজনৈতিক উস্কানিমূলক বক্তব্যের কারণে মিজানুর রহমান আল-আযহারী ও তারেক মনোয়ার বেশ সমালোচিত। তারা ওয়াজ পেশ করলে বিতর্কিত বক্তব্য রাখার আশঙ্কা ছিলো। তাই অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে এই দুই বক্তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

Loading...

জানা গেছে, আজ সকাল ৯টা থেকে বারবাকিয়ার বারবাকিয়া বাজার ব্রিজের দক্ষিণ পশ্চিম পার্শ্বে অবস্থিত ঐতিহাসিক বৃহত্তর সাবেক গুলদী তাফসীর বিশাল ময়দানে এই আলোচিত তাফসির মাহফিল শুরু হয়। সেই রাত ১টার পর্যন্ত মাহফিল চলবে।

মাহফিলে সকাল থেকে দেশের খ্যাতনামা বক্তারা ওয়াজ পেশ করেছেন। আরো করবেন, সাইয়্যেদ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন তাহের জাবেরী আল-মাদানী, আল্লামা ড. লুৎফর রহমান, আল্লামা কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, মাওলানা হাফেজ মুফতি আমীর হামজা, মাওলানা সাদিকুর রহমান আল আজহারী, শায়খ মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন প্রমুখ। এই মাহফিলে কক্সবাজারের প্রতিটি উপজেলা ছাড়াও দক্ষিণ চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল ধর্মপ্রাণ লোকজন এসেছেন। অন্তত তিন লক্ষাধিক সমবেত হয়েছেন বলে জানা গেছে। সুত্র: সিবিএন

পাঠকের মতামত: