কক্সবাজার, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

বান্দরবানে হেলিকপ্টারে ছিটানো হল ৫ লাখ বীজ

দেশের অন্যতম বৃহৎ প্রাকৃতিক বনাঞ্চল পার্বত্য জেলা বান্দরবানের সাংগু ও মাতামুহুরী রিজার্ভ বন রক্ষায় হেলিকপ্টারের মাধ্যমে বীজ ছিটানোর কার্যক্রম শুরু হয়েছে। গর্জন, চম্পা, চাপালিশ, জারুলসহ বিলুপ্তপ্রায় ৩০ প্রজাতির ৫ লাখ গাছের বীজ হেলিকপ্টার থেকে ছিটানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) সকালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও বিমান বাহিনীর সহায়তায় বান্দরবান ও লামা বন বিভাগের উদ্যোগে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে দুটি রিজার্ভ বনের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে এসব গাছের বীজ ছিটানো হয়।

সকালে বান্দরবানের আলীকদম সেনা জোনে প্রধান অতিথি হিসবে উপস্থিত থেকে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন সেনাবাহিনীর বান্দরবান রিজিয়নের রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. জিয়াউল হক। এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম অঞ্চলের বন সংরক্ষক মোহাম্মেদ আব্দুল আউয়াল সরকার, বান্দরবান বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. ফরিদ মিঞা, লামা বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এস. এম. কায়ছারসহ সেনাবাহিনী, বনবিভাগ ও সরকারি বিভিন্ন উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আয়োজকরা জানান, ব্রিটিশ আমলের পর এই প্রথম রিজার্ভ বন এলাকা রক্ষায় এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। রিজার্ভ বনের যেসব এলাকায় গাছের সংখ্যা কম এসব এলাকাতেই হেলিকপ্টার থেকে বীজ ছিটানো হয়েছে।
এছাড়া আলীকদম উপজেলার আলীকদম-পেয়ামুহরী সড়কের বিস্তীর্ণ সাঙ্গু রির্জাভ এলাকায় ফলজ, বনজ ও সৌন্দর্য বর্ধনকারী বিভিন্ন প্রজাতির চারা রোপন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, পরিবেশ বিপর্যয়, চোরাকারবারির উৎপাত, অপরিকল্পিত জুম চাষসহ নানা কারণে প্রাকৃতিক এই রির্জাভ ফরেস্ট এখন অনেকটাই উজাড় হতে বসেছে

পাঠকের মতামত: