কক্সবাজার, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১

বিএনপির আন্দোলন কৌশল : এবার পেশাজীবীদের সাথে ‘শলাপরামর্শ’

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনের কৌশল পাল্টাচ্ছে বিএনপি। এর অংশ হিসেবে দলটি আগামী দিনের আন্দোলনে পেশাজীবীদের পাশে চায়। এই হিসেব করে আন্দোলন কর্মসূচি দেবে দলটি।

তাই কেন্দ্রীয় ও অঙ্গ-সংগঠনের সঙ্গে দুই দফা বৈঠকের পর এবার পেশাজীবী সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে বিএনপি। টানা দুইদিন হবে এই বৈঠক।

শুক্রবার(৮ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে তিনটায় প্রথম দিনের বৈঠক শুরু হয়েছে। বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক হমান লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যুক্ত হয়ে আলোচনায় অংশ নেন।

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন, আইনজীবী, চিকিৎসক, ইঞ্জিনিয়ার, কৃষিবিদ, সাংস্কৃতিক, টেকনোলোজিজসহ ২০টি শাজীবী সংগঠন আজকের বৈঠকে অংশ নিয়েছে।

বৈঠকের শুরুতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়া কারাবন্দি। ণতন্ত্রের যে সংকট, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এর থেকে উত্তরণে আপনাদের মতামত রাখার আহ্বান করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও সেলিমা রহমান।

পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিদের মধ্যে রয়েছেন- অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, নিতাই রায় চৌধুরী, আহমেদ আজম খান, ফজলুর রহমান, ফরহাদ ডালিম ডোনার, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, মাসুদ আহমেদ তালুকদার,
অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস কাজল, ডা. শফিকুল হায়দার পারভেজ, প্রকৌশলী মাহবুল আলম, রিয়াজুল ইসলাম রিজু, সেলিম ভুঁইয়া, শামীমুর রহমান শামীম, গাজী কামরুল ইসলাম সজল, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডি, খন্দকার মোহাম্মদ হজরত আলী, জাহানারা সিদ্দিকী, শেখ মনিরউদ্দিন, কামরুল হাসান সদ্দার, জহিরুল ইসলাম শাকিল, কেয়া চৌধুরী বেবি, পারভিন কাওসার মুন্নী, সুমনা আক্তার স্মৃতি, শাহনাজ আক্তারসহ মোট ১০২ জন।

আগামীকালও (শনিবার) পেশাজীবীদের সঙ্গে বিএনপির আলোচনা হবে। এই দু’দিনে ৩২টি পেশাজীবী সংগঠনের নেতা, প্রতিনিধিরা মতবিনিময়ে অংশগ্রহণ করবেন বলে জানা যায়।

পাঠকের মতামত: