কক্সবাজার, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

বিজিবির করা মানহানি মামলায় নারী কর্মীর বিরুদ্ধে চার্জ গঠন

কক্সবাজারে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) দায়ের করা মানহানি মামলায় বেসরকারি সংস্থা ব্লাস্টের এক নারী কর্মীর বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছে আদালত। এর মধ্য দিয়ে বিচার কার্যক্রম শুরু হবে। আজ সোমবার দুপুরে মামলার নির্ধারিত দিনে কক্সবাজারের জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহ’র আদালতে ফারজানা আক্তারের বিরুদ্ধে এ চার্জ গঠন করে আদেশ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৮ অক্টোবর কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের বিজিবির টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়ানের দমদমিয়া চেকপোস্টে অন্যদের সঙ্গে অটোরিক্সার যাত্রী ব্লাস্ট এনজিও’র নারী কর্মী ফারজানা আক্তারকেও তল্লাশি করা হয়। পরে ওই নারী ধর্ষণের অভিযোগ করেন বিজিবির সদস্যদের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে তার (ফারজানা আক্তার) বক্তব্যের উপর ভিত্তি করে কয়েকটি গণমাধ্যমে সংবাদও প্রচারিত হয়।

advertisement
পরে ঘটনাটি মিথ্যা দাবি করে বিজিবির দমদমিয়া চেকপোস্টের সুবেদার মোহাম্মদ আলী মোল্লা বাদী হয়ে ওই নারী এনজিও কর্মীর বিরুদ্ধে ওই বছরের ১০ নভেম্বর কক্সবাজারের জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম আদালতে ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করেন।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য টেকনাফ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শরিফুল ইসলামকে নির্দেশ দেন। এ নিয়ে গত ২২ নভেম্বর ওই পুলিশ কর্মকর্তা আদালতে প্রতিবেদন জমা দেন। এতে আদালত ফারজানা আক্তারের বিরুদ্ধে সমন জারি করে আদেশ দেন।

গত ১৪ জানুয়ারি অভিযুক্ত আসামি কক্সবাজার জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহ’র আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। ওইদিন শুনানি শেষে আদালত তার জামিন মঞ্জুর করেন। এরপর গত ১১ মার্চ মামলার নির্ধারিত দিন ১৫ মার্চ চার্জ গঠনের শুনানি নির্ধারণ করেছেন। শুনানি শেষে চার্জ গঠন করা হয়।

বিজিবির দায়ের মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী সাজ্জাদুল করিম বলেন, ‘ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ তোলায় বিজিবির দায়ের মামলায় আদালত চার্জ গঠন করেছে। এখন বিচার কার্যক্রম শুরু হবে।’ যদিও এ আদেশের বিরুদ্ধে জেলা দায়রা ও জজ আদালতে আপিল করবে বলে জানিয়েছেন অভিযুক্ত নারীর পক্ষের আইনজীবী আবদুর শুক্কুর।

পাঠকের মতামত: