কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০

মিয়ানমারে আবারো ক্ষমতায় আসছে সুচি

সরকার গঠনের মতো যথেষ্ট সংখ্যক পার্লামেন্টারি আসন নিশ্চিত করে ফেলেছে মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি)। সর্বশেষ নির্বাচনি ফলাফল অনুযায়ী ক্ষমতা গ্রহণের জন্য ৪১৬ সিটের মধ্যে ৩২২ সিট দরকার হলেও অং সান সু চি’র নেতৃত্বাধীন দলটি ৩৪৬ আসনে জয় পেয়েছে। তবে ইতোমধ্যেই পুনর্নির্বাচনের দাবি তুলেছে সেনা সমর্থিত বিরোধী দল। বিবিসি।

মিয়ানমারের জাতীয় নির্বাচনে সেনা সমর্থিত ইউনিয়ন সলিডারিটি এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টি (ইউএসডিপি) দেশটির ডি-ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সুচির ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) কাছে পরাজিত হয়েছে। ২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সেনা সমর্থিত এই দলটি পেয়েছিল ১০ শতাংশ ভোট। এবার পেয়েছে তারও কম।

২০১৭ সালের রোহিঙ্গা সংকটের পর এবারের নির্বাচনকে অনেকেই সু চি’র জনপ্রিয়তা যাচাই হিসেবে দেখছিলেন। ওই বছর সেনা নিপীড়নের মুখে লাখ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে গেলে আন্তর্জাতিক সমালোচনার মুখে পড়েন সু চি। তবে সেনাবাহিনীর পক্ষে আন্তর্জাতিক আদালতে দাঁড়ানোর পর নিজ দেশে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান তিনি।

ব্যাপকভাবে পরাজিত হওয়ার পরও সেনা সমর্থিত দলটি বুধবার ইউইসির কাছে সেনা সহযোগিতা আরেক নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছে। তবে ভোট গণনা এখনও শেষ হয়নি। বিদেশি নাগরিককে বিয়ে করায় ২০১৫ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়েও প্রধানমন্ত্রী হতে পারেননি সুচি। একই কারণে এবারও তাকে ‘স্টেট কাউন্সিলর’হিসেবেই দায়িত্ব পালন করতে হবে।

পাঠকের মতামত: