কক্সবাজার, বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মেয়রকে বাদ দিয়ে পৌর এলাকায় উন্নয়ন সম্ভব নয়-সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ

রাশেদুল ইসলাম মাহমুদ::

গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার বিভাগ ও পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, জনগনের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে পৌর সভার মেয়রকে বাদ দিয়ে পৌর এলাকার উন্নয়ন কখনো সম্ভব নয়৷

শুক্রবার (১৯ ফ্রেব্রুয়ারি) সন্ধায় পৌরসভার চতুর্থ তলায় নব নির্মিত সম্মেলন হলে কাউন্সিলর হেলালুদ্দীন এর সঞ্চালণায় পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত চলমান উন্নয়ন কাজের অগ্রগতি বিষয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়৷

অনুষ্টিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, আগামী ৬ মাসের মধ্যে কক্সবাজার পৌরসভার চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের কাজগুলোর দৃশ্যমান অগ্রগতি দেখাতে হবে। তা না হলে জনগনের কাছে সবার দায়বদ্ধতা থেকে যাবে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা এবং নির্দেশনা অনুযায়ী টেকসই দীর্ঘ মেয়াদি উন্নয়ন কাজের কোন বিকল্প নেই, জনগনের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে পৌর সভার মেয়রকে বাদ দিয়ে পৌর এলাকার উন্নয়ন কখনো সম্ভব নয়৷ তাই পর্যটন নগরীকে সাজাতে সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টা আর একে অপরের প্রতি সহযোগিতার বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন কক্সবাজারের এই ভূমিপুত্র।

উক্ত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশীদ, কক্সবাজার উন্নয়ন কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে:কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-সচিব শ্রাবস্তী রায়, পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান, কউকের সদ্য বিদায়ী সদস্য (প্রকৌশল) লে.কর্ণেল আনোয়ার হোসেন, নবাগত সদস্য লে.কর্ণেল খিজির খান৷

সভায় বৈদ্যুতিক খুঁটি এবং প্রতিবন্ধকতার ছোট বড় স্থাপনাগুলো দ্রুত অপসারণ করার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। পাশাপাশি যানযট নিরসনের লক্ষে শিগগিরই পর্যটন বান্ব টাউন সার্ভিস চালু করার পরামর্শ দেন কক্সবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী।

পৌরসভার কাউন্সিলরদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, কাউন্সিলর সালাউদ্দিন সেতু, আক্তার কামাল আজাদ৷

এসময় অন্যন্যদের মধ্যে মহেশখালী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মকসুদ মিয়া, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের পাইপ লাইন প্রকল্পের পরিচালক আবদুল হালিম খান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী ঋতিক চৌধুরী, এল জি. ই.জি কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিচুর রহমান, এমজিএসপি প্রকল্পের পরিচালক শেখ মুজাক্কা জাহের, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী, কাউন্সিলরবৃন্ধ, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক
সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলীগণসহ সংশ্লিষ্টগন উপস্থিত ছিলেন৷

পাঠকের মতামত: