কক্সবাজার, রোববার, ৩ মার্চ ২০২৪

যুদ্ধ করেই দেশ পেয়েছি, কারো খবরদারির কাছে নতজানু হব না : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বাধীন, সার্বভৌম দেশ আমাদের, স্বাধীন জাতি আমরা। যুদ্ধে বিজয় অর্জন করেই আমরা আমাদের দেশ পেয়েছি। কারো খবরদারির কাছে নতজানু আমরা হব না, এটাই আমাদের সিদ্ধান্ত।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা জাতির পিতার আদর্শ নিয়ে দেশ পরিচালনা করছি। আমরা কোনো দেশের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করি না, অন্য কেউ আমাদের বিষয়ে হস্তক্ষেপ করুক তা আমরা সহ্য করবো না।

রোববার (১৮ জুন) সকালে স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, জাতির পিতার দেওয়া পররাষ্ট্র নীতি ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব কারো সঙ্গে বৈরিতা নয়’। আমরা সেই নীতি নিয়েই আমরা চলছি।

তিনি বলেন, একটা দেশ দ্রুত অগ্রগতি লাভ করুক। বিশ্বের অনেকেই সেটা চায় না। বাংলাদেশের এতো দ্রুত উন্নয়ন অনেকেই সহ্য করতে পারছেনা বলেই নানা বাধা ও চক্রান্ত হচ্ছে। তবে এসব নিয়ে ঘাবড়ানোর কিছু নেই। আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাব। জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আমরা গড়ে তুলবো।

সরকার প্রধান বলেন, আমরা আমাদের পদ্মা সেতু করেছি। দুর্নীতির অভিযোগে বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতুতে অর্থায়ন থেকে সরে গিয়েছিল। আমরা চুপ করে থাকিনি। আমরা প্রতিবাদ করেছি। কারণ আমাদের সততা ছিল। যার ফলে প্রতিবাদ করতে পেরেছি। কিন্তু ঠিকই প্রমাণ হয়েছে যে পদ্মা সেতুতে কোন দুর্নীতি হয়নি। আমরা চ্যালেঞ্জ নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে সে পদ্মাসেতু করে দেখিয়েছি। কারণ একটাই যে জাতির পিতা বলেছেন কেউ দাবায় রাখতে পারবে না। আমাদেরকে দাবায় রাখতে পারেনি।

তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় এসেছিল দুর্নীতি করতে। আর আওয়ামী লীগ সরকার মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করছে। দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের প্রত্যয় নিয়ে সরকার দেশ গড়ার কাজ করছে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে উন্নয়ন করাই সরকারের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়ে সরকার কাজ করছে। ইতোমধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

পাঠকের মতামত: