কক্সবাজার, শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০

রামু বৌদ্ধ মন্দিরে হামলার ৮ বছর আজ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গুজবের জের ধরে ২০১২ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে কক্সবাজারের রামুর বৌদ্ধ পল্লীতে চালানো হয় হামলা।

ঘটনার ৮ বছর অতিবাহিত হলেও এখনো শুরু হয়নি মামলার বিচার কার্যক্রম। ওই দিন রামুতে উত্তম বড়ুয়ার ফেসবুক আইডিতে পবিত্র কোরআনের অবমাননাকর ছবি পোষ্ট করার অভিযোগ তুলে একদল দূর্বৃত্ত উস্কানিমূলক মিছিল সহকারে বৌদ্ধ পল্লীতে হামলা চালিয়ে মন্দিরে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।

এতে কক্সবাজার সদর, রামু, উখিয়া ও টেকনাফে ১৩টি বৌদ্ধ বিহার এবং ৩০টি বসত বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। যদিও সরকারি পৃষ্টপোষকতায় নান্দনিকভাবে নির্মিত এসব বৌদ্ধ বিহার গত ২০১৩ সালের ৩ সেপ্টেম্বর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ওই ঘটনায় মামলা হয়েছিল ১৯টি। এরমধ্যে পুলিশ বাদি হয়ে ১৮টি মামলা করে। অপর একটি বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের এক ব্যক্তি বাদি হয়ে মামলা করলেও পরবর্তীতে বিবাদিদের সঙ্গে আপোষনামা দিয়ে খালাস করে।

কক্সবাজারের পাবলিক প্রসিকিউটর ফরিদুল আলম জানান, বিচারাধীন ১৮টি মামলায় স্বাক্ষী না পাওয়ায় বিচার প্রক্রিয়া নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে দীর্ঘসূত্রতা। তবে বিচার কার্যক্রম শুরু করার চেষ্টা রয়েছে।

পাঠকের মতামত: