কক্সবাজার, বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনায় অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা

কক্সবাজার উখিয়ার কুতুপালংয়ে রোহিঙ্গাদের শীর্ষস্থানীয় নেতা মো. মুহিবুল্লাহকে হত্যার ঘটনায় উখিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

উখিয়া-টেকনাফ সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাকিল আহমেদ জানান, বৃহস্পতিবার রাতে উখিয়া থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নিহত মুহিবুল্লাহর ছোট ভাই হাবিবুল্লাহ। তবে সেখানে আসামির কোনো সংখ্যা উল্লেখ করা হয়নি।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেলে উখিয়া কুতুপালং লম্বাশিয়া ক্যাম্প-১ ইস্ট ২ নম্বর কেন্দ্র জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন করা হয়। তার জানাজায় হাজারো মানুষ অংশ নেন।

এর আগে বুধবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে কুতুপালং মেগা ক্যাম্পের মধ্যে লম্বাশিয়ায় অবস্থিত এআরএসপিএইচ কার্যালয়ে একদল অস্ত্রধারী গুলি করে হত্যা করে রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা মো. মুহিবুল্লাহকে (৫০)। নয় সন্তানের জনক ছিলেন মুহিবুল্লাহ।

মিয়ানমারে থাকতে তিনি একটি স্কুলে শিক্ষকতা করতেন বলে ক্যাম্পের বাসিন্দাদের কাছে তিনি ‘মাস্টার মুহিবুল্লাহ’ নামে পরিচিত ছিলেন।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বুধবার ওই এলাকায় কোনো অভিযান ছিল না। ধারণা করা হচ্ছে, রোহিঙ্গাদের মধ্যে গোষ্ঠীগত দ্বন্দ্বের জেরে তাকে গুলি করা হয়েছে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, কারা এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

পাঠকের মতামত: