কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১

রোহিঙ্গা স্থানান্তর: অবাস্তব শর্তে জাতিসংঘকে সম্পৃক্ত করা হয়নি

জাতিসংঘের সংস্থাসমূহের অব্যাহত নেতিবাচক প্রচারণা, অবাস্তব শর্ত, অনড় অবস্থান ও অসযোগিতার কারণে ভাসান চরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তর প্রক্রিয়ায় জাতিসংঘকে এ পর্যন্ত সম্পৃক্ত করা সম্ভব হয়নি।

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) সংসদ ভবনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকের আলোচনার কার্যপত্র থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

বৈঠকে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তন ও তাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের সর্বশেষ অবস্থা নিয়ে আলোচনা হয় এবং যুক্তরাষ্ট্রে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতের উপস্থাপিত কর্মপরিকল্পনায় কমিটির পক্ষ থেকে সন্তোষ প্রকাশ করা হয়। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তনে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করতে কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

বৈঠকের কার্যপত্র থেকে জানা যায়, জাতিসংঘের সংস্থাসমূহের অব্যাহত নেতিবাচক প্রচারণা, অবাস্তব শর্ত, অনড় অবস্থান ও অসযোগিতার কারণে ভাসান চরে রোহিঙ্গাদের স্থানান্তর প্রক্রিয়ায় জাতিসংঘকে এ পর্যন্ত সম্পৃক্ত করা সম্ভব হয়নি। তবে জাতিসংঘের সংস্থাসমূহ এবং মানবিক সহায়তা প্রদানকারী অন্যান্য দাতা দেশ এবং সংস্থাসমূহকে স্থানান্তরিক রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা প্রদানে সম্পৃক্ত করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

কার্যপত্রের তথ্যের আলোকে আরও জানা যায়, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্তের আলোকে গত ৪ ডিসেম্বর সম্পূর্ণ স্বেচ্ছা সম্মতির ভিত্তিতে ১৬৪২ জন রোহিঙ্গার স্থানান্তর সম্পন্ন করা হয়।

সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ, কে, আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, মো. আব্দুল মজিদ খান, নাহিম রাজ্জাক এবং কাজী নাবিল আহমেদ অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত: