কক্সবাজার, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১

সালাহউদ্দিনকে আবারও ইউপি সদস্য হিসেবে দেখতে চান এলাকাবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক::

সকল জল্পনা-কল্পনা শেষে আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে উখিয়ার ৫ ইউনিয়নসহ সারাদেশের ৮৪৮ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।
সততা ও সাহসিকতাই নিয়ে রাজনীতি করে চলেছেন মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন৷ আজবধি তিনি কোনো অন্যায় অবিচারের সঙ্গে আপোষ করেননি। দৃঢ় অবস্থানের কারণে নিজ নির্বাচিত এলাকায় দিনের পর দিন তার জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। বর্তমানে যার বিকল্প হিসেবে অন্য কাউকে দেখছে না এলাকাবাসী। সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া সেই মেধাবী ও পরিশ্রমি মানুষটি হলেন স্বনির্ভর উখিয়া উপজেলা রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন।

রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ প্রতিটি ইউপি সদস্যের সাথে সুসম্পর্ক রেখে চলছে তার আগামীর পথচলা। শুধু নিজস্ব নির্বাচনী এলাকা নয় বরং তার পরিচয় ছড়িয়ে পড়ে কক্সবাজারের বিভিন্ন অঞ্চলে। পরোপকার ও দরিদ্র মানুষকে সহায়তাসহ বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্যই তিনি রাজাপালং জনসাধারনের কাছে বেশ পরিচিত।

বাংলাদেশকে যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করে রাজাপালং এলাকার হামিদ বলেন, এই অগ্রযাত্রার একজন অন্যতম কর্মী আমাদের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন। তিনি ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকায় সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজী ও মাদক ব্যবসা সহ সকল ধরনের অপরাধ নির্মূল করতে এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। তাই আমরা আগামীতে তার বিকল্প প্রার্থী হিসেবে অন্য কাউকে দেখছি না।

সৃৃজনশীল এই নেতার ব্যাপারে ২নং ওর্য়াডের শাহরিয়ার মোহাম্মদ তায়েফ বলেন, তিনি দু-দুবার ইউপি সদস্য হয়েছে বিপুল ভোটের ব্যবধানে। গত দশ বছরে আমাদের এই ২ নং ওয়ার্ডে যে পরিমান কাজ হয়েছে তা যদি এর আগে হতো তাহলে আমাদের এই এলাকাই হতো উখিয়ার রোল মডেল, তাই বাকি কাজটা সম্পূর্ণ করতে এলাকাবাসীর উচিত বর্তমান ইউপি সদস্যকে ভোট দিয়ে আবারও নির্বাচিত করা এবং জনগন তাই করবে বলে আমি মনে করি।

উত্তরপুকুরিয়া এলাকার ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা বলেন, উত্তর পুকুরিয়া থেকে হিজিলিয়া পর্যন্ত রাস্তা দিয়ে আগে হাঁটাহাঁটি করার মতো ছিল না কিন্তু বর্তমানে রাস্তাটি ধুনা দিয়ে চলাচলের উপযোগী করে তুলেছে। রাস্তাটা সালাউদ্দিন মেম্বারের অবদান। তাই আমরা আর কোন মেম্বার চাইনা, আমরা মেম্বার হিসেবে মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ভাইপোকে ভোট দিব।

বর্তমান সময়ে এই আলোচিত উদ্দমী নেতা মোহাম্মদ সালাউদ্দিন বলেন, আমার ওয়ার্ডে দু-দুবার সফল ইউপি সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেছে। আমি আমার নির্বাচনী এলাকার মানুষকে ভালোবেসে তাদের দুর্দশা ও দুরবস্থা দেখে নির্বাচন করেছি। জনগন আমাকে ভালোবেসে ভোট দিয়েছে আমি নির্বাচিত হয়েছে। যেহেতু জনগনের ভোটে আমি নির্বাচিত তাই সূখে-দুঃখে সব সময় তাদের সাথে থাকার চেষ্টা করেছি। আমি এলাকাবাসীকে যেমন ভালোবাসি তেমনি তারাও আমাকে ভালোবাসে। তাই আমি মনেকরি আগামীতেও এলাকাবাসী আমার আমার ডাকে সারা দিবে।
তিনি আরও বলেন, এলাকাবাসী যতদিন চান আমি ততদিন নির্বাচন করে যাবো। আমি আমার নির্বাচনী এলাকার রাজাপালং ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডকে একটি স্বচ্ছ সুন্দর ও একটি আধুনিক নগরীতে  রুপান্তরিত করার পক্ষে কাজ করে যাচ্ছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন যেন আবারও জনগণের পাশে থাকতে পারি।

উল্লেখ্য, উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং, জালিয়াপালং, রাজাপালং, রত্নপালং এবং পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদে আগামী ১১ নভেম্বর ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে৷

পাঠকের মতামত: