কক্সবাজার, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কমিটির সময়বৃদ্ধির আবেদন; প্রদীপের সাথে সাক্ষাৎ ১ সেপ্টেম্বর

সাবেক মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার সময় বৃদ্ধির আবেদন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত কমিটি। মামলার ২ নম্বর আসামি টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে না পারায় তৃতীয় দফায় সময় বৃদ্ধির আবেদন করা হয়েছে।

সাবেক মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যাকাণ্ডের প্রায় এক মাস গত হয়েছে। তবুও মামলার দুই নম্বর আসামি, টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ কুমার দাশের দেখা পায়নি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটি। মামলার তদন্তকারী সংস্থা র‍্যাবের তৃতীয় দফায় চার দিনের রিমান্ডে নিয়েছে প্রদীপকে। এই রিমান্ড শেষ হবে আগামী ১ সেপ্টেম্বর। সেদিনই ওসি প্রদীপের সাথে কথা বলবে কমিটি। =

তদন্ত কমিটির প্রধান ও চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, তদন্তের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যে ৬৮ জনের তালিকা করা হয়েছিল তার মধ্যে কেবল আসামি প্রদীপ কুমার দাশ বাকি আছেন। তার সাথে সাক্ষাৎ না হওয়া পর্যন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা রাশেদ খান। ঘটনার পর পুলিশ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় দুটি মামলা করে। আর রামু থানায় একটি মামলা করা হয়। ৫ আগস্ট কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যা মামলা করেন সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস। এতে ৯ জনকে আসামি করা হয়। মামলায় এখন পর্যন্ত ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

পাঠকের মতামত: