কক্সবাজার, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

হঠাৎ মালয়েশিয়ার বিমানবন্দরে শ্রমিকদের ঢল

ত কয়েকদিন ধরে মালয়েশিয়ায় হঠাৎ করে বেড়ে গেছে বিদেশি শ্রমিক প্রবেশের সংখ্যা। দেশটির কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং টার্মিনাল-২ দিয়ে প্রতিদিনই প্রবেশ করছে হাজার হাজার বিদেশি শ্রমিক।

মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগের পরিচালক জেনারেল দাতুন রুসলিন জসুহ বলেছেন, আগামী ৩১ মে-র পর দেশটিতে কেউ আর বিদেশি শ্রমিক নিয়োগ দিতে পারবে না। ফলে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানগুলো শেষ মুহূর্তে হাজার হাজার শ্রমিককে নিয়োগ দিয়েছে। আর সেসব শ্রমিকই এখন মালয়েশিয়াতে আসা শুরু করেছেন। এ কারণে হঠাৎ করে বিদেশি শ্রমিকের প্রবেশের সংখ্যা কয়েক গুণ বেড়ে গেছে।

এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার (৩০ মে) এক বিবৃতিতে জেনারেল দাতুন রুসলিন বলেছেন, “নিয়োগকারীদের বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকার ৩১ মে পর্যন্ত সময় বেধে দিয়েছে। এ কারণে এমন ঘটনা ঘটছে।”

তিনি আরও বলেছেন, “যেসব বিদেশি শ্রমিক মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করছেন তাদের সবাইকে পর্যালোচনার মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে এবং বিমাবন্দরে তাদের স্বাস্থ্যগত পরীক্ষা-নিরীক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করা হচ্ছে।”

এই কর্মকর্তা আরও বলেছেন, “সাধারণত মালয়েশিয়ায় প্রতিদিন ৫০০ থেকে ১ হাজার বিদেশি শ্রমিক আসেন। কিন্তু গত ২২ মে এই সংখ্যা ২ হাজার ৫০০ জনে পৌঁছায়। আর ২৭ মে এই সংখ্যা ৪ হাজার থেকে সাড়ে ৪ হাজারে পৌঁছায়।”

কাল ৩১ মে এই সংখ্যা আরও বাড়বে বলে ধারণা করছেন তিনি। কারণ বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলো মালয়েশিয়ায়া ফ্লাইটের সংখ্যা বাড়িয়ে দিয়েছে।

শ্রমিকরা যেন মালয়েশিয়ায় এসে কোনো ধরনের ভোগান্তিতে না পড়েন সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেনারেল দাতুন রুসলিন। এর অংশ হিসেবে বিমানবন্দরে পর্যাপ্ত খাবার ও পানীয়র ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়া নিয়োগকারীদের কাছ থেকে সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

পাঠকের মতামত: