কক্সবাজার, বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০

২৬ বাংলাদেশি হত্যার বিচার হবে: লিবিয়া

লিবিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় মিজদাহ শহরে ২৬ বাংলাদেশির হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে কঠোর নিন্দা জানিয়েছে লিবিয়ার সরকার।

সোমবার (১ জুন) লিবিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক শোক বার্তায় এ নিন্দা জানানো হয়।

এ হত্যাকাণ্ডকে কাপুরুষোচিত কাজ উল্লেখ করে হত্যাকারীদের বিচারের আওতায় আনারও অঙ্গীকার করা হয়েছে এ শোক বার্তায়।

এতে নিহতদের পরিবার ও বাংলাদেশ সরকারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানো হয়েছে।

এ হত্যাকাণ্ডের তদন্ত ও বিচারের বিষয়ে লিবিয়ার সরকার গৃহীত পদক্ষেপসমূহ নিহতদের পরিবার ও বাংলাদেশ সরকারকে জানানো হবে বলে শোকবার্তায় উল্লেখ করা হয়।

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গত ডিসেম্বরে বাংলাদেশ থেকে ৩৮ জন তরুণ ভারত ও মিসর হয়ে লিবিয়ায় যান। সেখান থেকে ইতালিতে যাওয়াই ছিল তাঁদের উদ্দেশ্য।

কিন্তু সুদানের আরও কয়েকজন নাগরিকের সঙ্গে এই বাংলাদেশি তরুণেরাও লিবিয়ায় দুই দফা অপহরণের শিকার হন। প্রথম দফা অপহরণের পর মুক্তিপণ দিয়ে তাঁরা ছাড়া পান।

দ্বিতীয় দফায় চাহিদামাফিক অর্থ দিতে না পারায় অপহরণকারীরা তাঁদের ওপর নির্মম নির্যাতন চালায়। একপর্যায়ে তাঁরা অপহরণকারী দলের হোতাসহ দুজনকে হত্যা করেন।

এই হত্যার প্রতিশোধ নিতে অপহরণকারীরা নির্বিচারে জিম্মিদের ওপর গুলি চালালে ২৬ জন বাংলাদেশি ও ৪ জন সুদানি নিহত হন।

এদিকে, লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনার তদন্তে নেমে র‌্যাব ঢাকায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

র‌্যাব-৩ এর উপ অধিনায়ক মেজর রাহাত হারুন খান গণমাধ্যমকে বলেন, রেববার রাতে রাজধানীর একটি এলাকা থেকে ৫৫ বছর বয়সী কামাল হোসেন ওরফে হাজী কামালকে তারা গ্রেপ্তার করেন।

পাঠকের মতামত: