কক্সবাজার, শুক্রবার, ২০ নভেম্বর ২০২০

কক্সবাজারে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩২২২, মৃত্যু ৫৮

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী::

কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২২ জুলাই পর্যন্ত ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। তারমধ্যে, ৫২ জন স্থানীয় নাগরিক ও ৬ জন রোহিঙ্গা শরনার্থী। মৃত্যুর হার ১’৮১% ভাগ। কক্সবাজার সিভিল সার্জন অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্রাপ্ত পরিসংখ্যান মতে, ২৩ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে মোট ৩২২২ জন। তারমধ্যে, স্থানীয় নাগরিক ৩১৫৮ জন এবং রোহিঙ্গা শরনার্থী ৬৪ জন। আবার রোহিঙ্গা শরনার্থীদের মধ্যে উখিয়া উপজেলায় ৫৭ জন ও টেকনাফ উপজেলায় ৭ জন। পুরাতন করোনা রোগীর ফলোআপ টেস্টে ২২ জুলাই পর্যন্ত মোট ১৭৯ জনের রিপোর্টও ‘পজেটিভ’ এসেছে।

২৩ জুলাই বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ১৫৩৩ জন রোগী নিয়ে কক্সবাজার সদর উপজেলা শীর্ষে অবস্থান করছে। ৩৯৬ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে উখিয়া উপজেলা দ্বিতীয় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে। ৩৫২ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে চকরিয়া উপজেলা তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। ২৭৭ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে টেকনাফ উপজেলা চতুর্থ অবস্থানে, ২৭৩ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে রামু উপজেলা পঞ্চম অবস্থানে, ১৬০ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে মহেশখালী উপজেলা ষষ্ঠ অবস্থানে, ১৩৬ জন করোনা রোগী নিয়ে পেকুয়া উপজেলা সপ্তম অবস্থানে এবং কুতুবদিয়া উপজেলা ৮৫ জন করোনা রোগী নিয়ে ৮টি উপজেলার মধ্যে সর্বনিম্মে অবস্থান করছে। তবে মাত্র প্রায় দেড় লক্ষ জনসংখ্যা অনুপাতে কুতুবদিয়া উপজেলায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা একেবারে কমও নয়।

গত ২২ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে করোনা ভাইরাস এর নমুনা টেস্ট করা হয়েছে মোট ২৪৭৯৬ জনের। তারমধ্যে স্থানীয় নাগরিকের নমুনা ১৮৭৯৬ জনের, রোহিঙ্গা শরনার্থীর নমুনা ১৫৭৩ জনের, বান্দরবান জেলার নাগরিকের নমুনা ৩৪৬২ জনের এবং চট্টগ্রাম জেলার নাগরিকের নমুনা ৯৬৫ জনের।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে গত ২২ জুলাই পর্যন্ত ২৩১২ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। সুস্থতার হার ৭২’২৭% ভাগ।

পাঠকের মতামত: